Thursday, May 30, 2024
দেশ

কাশ্মীরের আলাদা প্রধানমন্ত্রী চান ওমর! গম্ভীর বললেন ‘উড়ন্ত শুয়োর দেখেছেন?’

নয়াদিল্লি: জম্মু-কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসনের দাবি জানিয়েছেন ন্যাশনাল কনফারেন্স দলের নেতা ও রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লা। জম্মু-কাশ্মীরের জন্য আলাদা রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী ফিরিয়ে আনার অঙ্গীকার করেন তিনি। ভারতীয় সংবিধানের ৩৫(এ) এবং ৩৭০ ধারার প্রসঙ্গ উল্লেখ করে ওমর আবদুল্লা বলেন, নিজদের স্বতন্ত্র সত্তা বজায় রাখতে আমরা সংবিধানে কিছু বিষয় অন্তর্ভুক্ত করেছি। আমরা বলেছিলাম, আমাদের স্বতন্ত্র পরিচিতি বজায় রাখতে হবে। আমাদের নিজস্ব আইন, পতাকা থাকবে।

ওমর আবদুল্লা আরও বলেন, একসময় আমাদের সদর-এ-রিয়াসত (রাষ্ট্রপতি) এবং ওয়াজির-এ-আজম (প্রধানমন্ত্রী) ছিলেন। আল্লাহ’র দয়ায় আমরা তা ফিরিয়ে আনব। ৩৫(এ) এবং ৩৭০ ধারায় হাত দিলে আগামীদিনে ভারত থেকে কাশ্মীর আলাদা হয়ে যাবে বলেও হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

এহেন মন্তব্য করায় ওমর আবদুল্লাকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করেছেন গৌতম গম্ভীর। ওমরের উদ্দেশে একাধিক টুইটে বিজেপির তারকা নেতা গৌতম গম্ভীর বলেন, ওমর আবদুল্লা জম্মু-কাশ্মীরের জন্য পৃথক প্রধানমন্ত্রী চান। তবে আমিও মহাসাগরের উপর দিয়ে হেঁটে যেতে চাই। ওমর আবদুল্লা যদি জম্মু-কাশ্মীরের জন্য পৃথক প্রধানমন্ত্রী চান। তবে আমিও শুয়োরদের উড়তে দেখতে চাই। পৃথক প্রধানমন্ত্রী নয়, ওমর আবদুল্লার প্রয়োজন ভালো ঘুম এবং কড়া কফি! এরপরও যদি বুঝতে অসুবিধা হয়, তবে পাকিস্তানের সবুজ পাসপোর্ট!

উল্লেখ্য, ওমর আবদুল্লার এহেন মন্তব্যের তীব্র সমালোচনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও। এই ইস্যুতে কংগ্রেসকে তার অবস্থান স্পষ্ট করার দাবি জানিয়েছেন তিনি। ন্যাশনাল কনফারেন্স কীভাবে এমন দাবি তোলার সাহস পায় কংগ্রেসের কাছে সে জবাবও চেয়েছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, এর আগে পিডিপি নেত্রী ও জম্মু-কাশ্মীরের আরেক প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতিও এক ধরনের কথা বলেছিলেন। বিশেষ মর্যাদা সরিয়ে নিলে জম্মু-কাশ্মীরের সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক শেষ হয়ে যাবে বলে তিনি হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন মেহবুবা মুফতি।