Monday, June 24, 2024
দেশ

চিকিৎসা সরঞ্জামের কালোবাজারি রুখতে আরও কঠোর হল যোগী প্রশাসন

লখনউ: করোনার দ্বিতীয় ধাক্কায় নাজেহাল অবস্থা গোটা দেশের। কঠিন এই পরিস্থিতিতে একশ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ী দালালরাজ, কালোবাজারি এবং মজুদদারী অব্যাহত রেখেছে। যার ফলে ব্যাপক ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। এবার চিকিৎসা সরঞ্জামে কালোবাজারি রুখতে তৎপর হল উত্তরপ্রদেশের যোগী প্রশাসন।

মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ (Yogi Adityanath) জানিয়েছেন, করোনার জীবনদায়ী ওষুধ রেমডেসিভির (Remdesivir)  কালোবাজারি (Black Marketing) করলে অপরাধীদের বিরুদ্ধে জাতীয় নিরাপত্তা আইনে (National Security Act) মামলা দায়ের করা হবে। এই ধরনের কার্যকলাপের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দেন তিনি।

করোনা পরিস্থিতি সরেজমিনে খতিয়ে দেখতে শনিবার কানপুরে যান মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। তিনি বলেন, আগামী মাস থেকে রাজ্যে টিকাকরণের গতি বৃদ্ধির চেষ্টা করা হচ্ছে। পাশাপাশি, তিনি বলেন, করোনার তৃতীয় ওয়েভের প্রস্তুতি হিসাবে হাসপাতালগুলোর পরিকাঠামোর উন্নতি করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, দেশের বিভিন্ন রাজ্যে করোনার কঠিন পরিস্থিতিতেও দালালরাজ লক্ষ্য করা গিয়েছে। শ্মশানে মৃতদেহ সৎকার করতে দালালকে দিতে হচ্ছে মোটা অংকের টাকা। অ্যাম্বুলেন্সের ভাড়া নেওয়া হচ্ছে কয়েক গুণ। অক্সিজেনের দাম স্বাভাবিক সময়ের থেকে অনেকগুণ বেশি নেওয়া হচ্ছে। কালোবাজারি বন্ধে জাতীয় নিরাপত্তা আইনে মামলা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল।

গত মাসে উত্তরপ্রদেশে ভুয়ো রেমডেসিভির ইঞ্জেকশন বিক্রির অভিযোগে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে এই আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এই আইনে পুলিশ কোনও ব্যক্তিকে বিনা চার্জে ১ বছর অবধি আটক রাখতে পারে।