Friday, April 12, 2024
দেশ

বিয়ে করে টাকা হাতানোই যার পেশা!

চেন্নাই: চাকরি-বাকরি না করে শুরু করেছিলেন পরিবহন ব্যবসা। কিন্তু খুব একটা সুবিধা করতে পারছিলেন না। বিকল্প হিসেবে তাই তিনি শুরু করেন এক ভিন্ন ব্যবসা। বিধবা এবং বিবাহ বিচ্ছেদ হওয়া ধনী নরীদের বিয়ে করা শুরু করেছিলেন তামিলনাড়ুর কোয়েম্বাটুর জেলার ভেল্লালোরের বাসিন্দা বি পুরুষোত্তমন।

গত ৮ বছর ধরে এমন ৮ জন নারীকে বিয়ে করে প্রায়ে সাড়ে চার কোটি টাকার মালিক হয়ে গিয়েছিল ৫৭ বছরের পুরুষোত্তমন। অবশেষে তার জালিয়াতি ফাঁস হয়ে যায়। তার চতুর্থ স্ত্রী, চেন্নাইয়ের অধ্যাপক ইন্দিরা গান্ধী স্বামীর নামে প্রতারণার অভিযোগ দায়ের করেন। তারপরই পুরুষোত্তমনের ৮টি কুকীর্তির কথা সামনে আসে।

ইন্দিরা গান্ধী পুলিশকে জানিয়েছেন, পুরুষোত্তমন তাকে চেন্নাইয়ের বিলাসবহুল বাড়িটি বিক্রি করে দেন, যাতে তারা কোয়েম্বাটুরে নতুন দাম্পত্য জীবন শুরু করতে পারেন। কথা মতো দেড় কোটি টাকায় বাড়ি বিক্রি করে পুরো টাকাটাই স্বামীর হাতে তুলে দিয়েছিলেন ইন্দিরা। এরপরই পুলিশে অভিযোগ জানাতে গিয়ে তিনি জানতে পারেন তার আগে আরও তিনজনকে এবং পরে আরও চারজনকে বিয়ে করেছিল পুরুষোত্তমন। তাদের কাছ থেকেও প্রচুর অর্থ হাতিয়ে নেয় এই প্রতারক।

তামিলনাড়ুর পুলিশ আধিকারিক মাসুথা বেগম বলেন, “হাই প্রোফাইল মহিলাদেরই টার্গেট করত অভিযুক্ত। তার নামে সিটি পুলিশের কাছে মোট ১৮টি প্রতারণার অভিযোগ নথিভুক্ত আছে। বর্তমানে আমরা অভিযুক্তের সন্ধানে তল্লাশি চালাচ্ছি।”