Tuesday, June 18, 2024
দেশ

‘প্রধানমন্ত্রীর পদটিকে সম্মান করতে শিখুন’, মমতাকে ‘খোঁচা’ অসমের মুখ্যমন্ত্রীর

গুয়াহাটি: রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় ইস্যুতে এবার মন্তব্য করলেন অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ঘূর্ণিঝড় ইয়াস পর্যালোচনা বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুপস্থিতি এবং সময় নিয়ে মন্তব্যর প্রেক্ষিতে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন হিমন্ত বিশ্ব শর্মা।

মমতাকে তোপ দেগে হিমন্ত বলেন, সকলের উচিত প্রধানমন্ত্রীর পদটিকে সম্মান করা। নয়ত দেশ বাঁচবে না। অসমের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, কোনও মুখ্যমন্ত্রী কখনও বলতে পারেন না আমি প্রধানমন্ত্রীর জন্য ৩০ মিনিট অপেক্ষা কেন করব? আমি আমার পুরো রাজনৈতিক জীবনে এমন কথা কখনও শুনিনি। অনেক মুখ্যমন্ত্রীদের দেখেছি সোনিয়া গান্ধীর ওয়েটিং রুমে দুই থেকে তিন ঘন্টা বসে অপেক্ষা করছেন।

হিমন্তের কথায়, নিজেদের অহংকারকে দূরে রেখে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ ও অপেক্ষা করা উচিত সকলেরই। ইয়াসের পর প্রধানমন্ত্রী মোদী কোনও নির্বাচনী সমাবেশে যাননি বরং রাজ্যবাসীদের কল্যাণে গিয়েছিলেন। তাই বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এহেন আচরণ যথাযোগ্য নয়।

দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে দেওয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে অসমের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে গণতন্ত্রের ভুল ব্যাখ্যা করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, আজ কেন্দ্র-রাজ্যের সম্পর্ক এমন জায়গায় পৌঁছেছে যে কোনও মুখ্যমন্ত্রী কেন্দ্রকে চ্যালেঞ্জ জানাতে সাহস করতে পারে।

বুধবার নয়াদিল্লিতে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেন হিমন্ত। তিনি জানান, মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে ‘জিরো আওয়ার’ এর মতো একটি ধারণা চালু করার পরামর্শ দিয়েছেন। যেখানে সরকার সম্পর্কে কেবল নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া শুনবেন তিনি।

গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীন মোদীর কথা উল্লেখ করে হিমন্ত বলেন, মোদীজি বলেছেন তিনি এই প্র্যাকটিস গুজরাটেও করতেন। উনি বলেছেন, ভালো বলার লোক তুমি প্রচুর পাবে। কিন্তু খারাপটাও শোনো। তাহলেই তুমি সংশোধন করতে পারবে। তিনি জানিয়েছেন, নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া শুনে তিনি উৎসাহিত হন।