Thursday, June 13, 2024
দেশ

সংসদে স্পিকারের দিকে কাগজ ছুড়ে অভব্য আচরণ, সাসপেন্ড ১০ সাংসদ

নয়াদিল্লি: পেগাসাস কান্ড, নয়া কৃষি আইন, জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি- সহ একাধিক বিষয়ে উত্তাল সংসদের দুই কক্ষ। বুধবার হাতে প্ল্যাকার্ড নিয়ে লোকসভার ওয়েলে নেমে আসেন বিরোধীরা। সাংসদরা স্পিকারের দিকে কাগজ ছুড়ে দেন। এই ঘটনায় সাসপেন্ড করা হলো ১০ জন সাংসদকে। সাসপেন্ড হওয়া সাংসদদের মধ্যে বেশির ভাগই কংগ্রেসের।

সাসপেন্ড হওয়া সাংসদরা হলেন গুরজিৎ সিংহ অজলা, টি এন প্রতাপন, মনিকাম ঠাকুর, রবনীত সিংহ বিট্টু, হিবি ইডেন, এএম জোথিমানি প্রমুখ। বিরোধীদের তীব্র হট্টগোলের জন্য বুধবার দুপুর আড়াইটে পর্যন্ত লোকসভা এবং পৌনে তিনটে পর্যন্ত রাজ্যসভার অধিবেশন স্থগিত রাখা হয়।

রাজ্যসভায় বিরোধীদের এহেন আচরণের তীব্র নিন্দা করে ডেপুটি চেয়ারম্যান হরিবংশ নারায়ণ সিংহ বলেন, মাস্ক না-পরে এটা কি ধরনের আচরণ? এই পরিস্থিতিতে অন্তত করোনা বিধি তো মেনে চলুন!

বিজেপির অনুরাগ ঠাকুর বলেন, বিরোধীরা সংসদের কাজে বাধা দিচ্ছে। প্রতিবাদ করা যেতেই পারে, কিন্তু সেটার একটা সীমা রাখা উচিত। স্পিকার, মন্ত্রীদের দিকে কাগজ ছুড়ে দিচ্ছেন বিরোধীরা। অথচ আলোচনা করতে চাইছেন না।

উল্লেখ্য, এর আগে গত শুক্রবার অগণতান্ত্রিক এবং অসংসদীয় আচরণের জন্য তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেনকে সাসপেন্ড করেন রাজ্যসভার চেয়ারম্যান বেঙ্কাইয়া নায়ডু। বৃহস্পতিবার রাজ্যসভায় কেন্দ্রীয় তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণোর হাত থেকে বক্তৃতার কাগজ ছিনিয়ে নেন শান্তনু। তারপর তা ছিঁড়ে ফেলে ডেপুটি চেয়ারম্যান হরিবংশ নারায়ণ সিংহের দিকে ছুড়ে দেন। এই ঘটনায় তাকে সাসপেন্ড করা হয়।