Saturday, September 23, 2023
দেশ

দিওয়ালিতে রামচন্দ্রের আরতি করায় ফতোয়ার মুখে মুসলিম মহিলারা

নয়াদিল্লি: আলোর উৎসব দীপাবলিতে জাতি-ধর্ম ভেদাভেদ ভুলে ভগবান রামচন্দ্রকে আরতি করেছিলেন বারাণসীর মুসলিম মহিলারা। তাই এমন ‘ইসলামবিরোধী কাজ’ করায় তাঁদের বিরুদ্ধে ফতোয়া জারি করল দারুল উলুম দেওবন্দ।

দারুল উলুমের দাবি, আল্লাহ্ ছাড়া অন্য কারও কাছে প্রার্থনা করা যাবে না এবং যারা ইসলাম ধর্মাবলম্বী হয়েও দিওয়ালিতে আরতি করেছেন তাঁদের আর ‘মুসলিম’ বলে গণ্য করা হবে না।

সংবাদ সংস্থা এএনআই-কে এক মৌলবাদি জানান, যে ব্যক্তি বা মহিলা আল্লা ছাড়া অন্য কোনও ধর্মের ঈশ্বরের পুজোয় শামিল হবেন, তাঁদের আর মুসলিম বলে মেনে নেওয়া হবে না।

চলতি মাসে আরও দুটি ফতোয়া জারি করেছিলেন দারুল উলুম। দুই দিন আগে মুসলিম সংগঠনটি মুসলিমদের সোশ্যাল মিডিয়া ও হোয়াটস অ্যাপে ছবি পোস্টে নিষেধাজ্ঞা জারি করে ফতোয়া জারি করেছিল। দারুল উলুম দেওবন্দের শাহনওয়াজ কাদরি জানিয়েছেন, ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপে নিজের বা পরিবারের ছবি পোস্ট করা মুসলিম রীতি বিরুদ্ধ।

চলতি মাসের প্রথম দিকেই মুসলিম মহিলাদের ভ্রু প্লাক ও চুল কাটা ইসলামবিরোধী ঘোষণা করে ফতোয়া দিয়েছিল দারুল ইফতা। দারুল ইফতার মাওলানা সাদিক কাশমির দাবি, বিউটি পার্লারে ‌মেক আপ করে মহিলারা পুরুষদের চোখ টানার চেষ্টা করেন। ইসলামে এটা বারণ করা হয়েছে। মুসলিম পুরুষেরও দাঁড়ি কামানো নিষেধ। মুসলিম মহিলাদের বিউটি পার্লারে ‌যাওয়ার প্রবণতা বাড়ছে। এটা বন্ধ করতেই ফতোয়া দেওয়া।