Monday, June 24, 2024
দেশ

যৌতুক চাইলে কিংবা বাল্য বিয়েতে উপস্থিত থাকলে হারাতে হবে চাকরি

পাটনা: বিয়েতে যৌতুক নিলে কিংবা কোনও নাবালিকার বিয়েতে উপস্থিত হলে হারাতে হবে চাকরি। বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের জন্য এমনই নির্দেশিকা জারি করলেন।

উল্লেখ্য, বিহারে সরকারি কর্মচারীদের শপথ নিতে হয় যে তারা নিজের বা পরিবারের কারও বিয়েতে যৌতুকের দাবি করবেন না এবং কোনও বাল্য বিবাহে অংশগ্রহণ করবেন না।

তবে এই আইন থাকা সত্ত্বেও বিহারে বিবাহযোগ্য সরকারি কর্মচারীদের ‘দাম’ ক্রমেই বাড়ছিল। শপথপাঠ ভুলে গিয়ে পাত্রীপক্ষের কাছে মোটা অংকের টাকা যৌতুক নিয়ে আসছিল পাত্র বা তার পরিবারের লোকজন। অনেক ক্ষেত্রেই ‘ভালো’ পাত্র হাতছাড়া হওয়ার ভয়ে মুখ বুজে সেই দাবি মেনেও নেন পাত্রীপক্ষ। তবে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই দেখা গিয়েছে, সরকারি চাকুরে পাত্রের আবদার মেটাতে ধার- দেনায় ডুবে যেতে হয় পাত্রীপক্ষকে। আবার পণের দাবিতে গৃহবধূর ওপর নির্যাতনও বিহারের নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার। লোক সংবাদ নামে এক অনুষ্ঠানে এমনই এক মহিলা মুখ্য়মন্ত্রীর কাছে সরাসরি অভিযোগ করেন। তারপরই নড়েচড়ে বসে রাজ্য প্রশাসন।

সমাজ সংস্কারে এর আগে রাজ্যজুড়ে মদের ওপর কঠোরভাবে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে বিহার সরকার। শুধু মদ বিক্রিই নয়, মদ খেতে গিয়ে ধরা পড়লেও শাস্তির বিধান রয়েছে মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের রাজ্য়ে।