Thursday, May 23, 2024
রাজ্য​

এবার সরাসরি পিসি, ভাইপো-সহ সমস্ত দুর্নীতিগ্রস্ত নেতা মন্ত্রীদের জেলে পাঠানোর হুঁশিয়ারি দিলেন অমিত শাহ

কলকাতা ট্রিবিউন ডেস্ক: লোকসভা ভোটের মধ্যে এবার সরাসরি পিসি ভাইপোকে হুঁশিয়ারি দিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। বীরভূমের রামপুরহাট বিধানসভার চাকপাড়া হাইস্কুল মাঠের জনসভা থেকে তিনি বলেন, ‘লোকসভা ভোটে পশ্চিমবঙ্গ থেকে বিজেপিকে ৩০টি আসন জিতলেই পিসি, ভাইপো-সহ সমস্ত দুর্নীতিগ্রস্ত নেতা মন্ত্রীদের জেলে পাঠাবো।’

অমিত শাহ বলেন, “বীরভূমের এই লাল মাটিতে তুফান উঠবে। মমতা দিদি এই জেলায় আপনার জন্ম। ১৫ বছর ধরে আপনি মুখ্যমন্ত্রী। অথচ জেলায় কোনও চাকরি নেই। জেলার যুবকদের কেন বাইরে কাজ করতে যেতে হয়? ৫ টা সতীপীঠ। কিন্তু কোনও পর্যটন কেন্দ্র নেই। আমরা বীরভূমের দায়িত্ব নেব। মমতা দিদি এবার আপনার হিসাব নিকাশের সময় এসেছে।”

অমিত শাহ বলেন, “অনুব্রত মণ্ডল এখানকার মস্তান ছিলেন। তিনি এখন তিহার জেলে হাওয়া খাচ্ছে। এখনও সময় আছে সিন্ডিকেট বন্ধ কর। তা না হলে উল্টো করে ঝুলিয়ে সোজা করে দেব। আর এটা একমাত্র বিজেপিই পারে।”

দুর্নীতি প্রসঙ্গে অমিত শাহ বলেন, “কংগ্রেসের নেতার বাড়ির থেকে ৩০০ কোটি টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। বাংলার মন্ত্রীদের বাড়ি থেকে কোটি কোটি টাকা উদ্ধার হয়েছে। ওই টাকা জনগণের টাকা। দুর্নীতি করলে জেলে যেতে হবে। কাটমানি, দুর্নীতি রাজ্যের চিন্তার কারণ। বিজেপি এলে কাটমানি সিন্ডিকেট বাংলা ছেড়ে চলে যাবে।”

রাম মন্দির প্রসঙ্গে অমিত শাহ বলেন, “রাম মন্দির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সোনিয়া, রাহুল, মমতা, অভিষেকদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। কিন্তু ভোট ব্যাঙ্কের কারণে তারা যায়নি।”

সন্দেশখালির প্রসঙ্গে অমিত শাহ বলেন, “সন্দেশখালির মহিলাদের সর্বনাশ করেছে তৃণমূল সরকার। মমতা রাজনৈতিক কারণে সব জেনেও রোখেনি। মহিলাদের শোষণ হতে দিয়েছে মমতা। ইডি না থাকলে আজ শোষিত হতেন মহিলারা।”