Monday, June 24, 2024
দেশ

কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের ফোনে ‘আরোগ্য সেতু’ অ্যাপ বাধ্যতামূলক করল সরকার

নয়াদিল্লি: করোনা মোকাবিলায় কেন্দ্রীয় সরকারের সমস্ত সমস্ত কেন্দ্রীয় আধিকারিক, স্থানী ও অস্থানী কর্মী এবং আউটসোর্সড কর্মীদের মোবাইল ফোনে সরকারি ‘আরোগ্য সেতু’ অ্যাপ ডাউনলোড বাধ্যতামূলক করা হল। ‘আরোগ্য সেতু’ অ্যাপের মাধ্যমে কোনও ব্যক্তির কোভিড-১৯ আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কতটা তার ইঙ্গিত পাওয়া যায়। কাজ শুরুর আগে প্রতিদিন তাঁদের শারীরিক অবস্থার কথা এই অ্যাপেই জানা যাবে। অ্যাপ ‘সেফ’ অথবা ‘লো রিস্ক’ দেখালে তবেই তাঁরা অফিসে যোগ দিতে পারবেন।

বুধবার কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, প্রতিদিন ‘আরোগ্য সেতু’ অ্যাপের মাধ্যমে সরকারি কর্মীদের স্বাস্থ্য পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে হবে। এ ছাড়া, কর্মসূত্রে কোথাও যাতায়াতের স্বার্থেও আরোগ্য সেতু অ্যাপের সাহায্য নেওয়া বাধ্যতামূলক। অ্যাপ মাধ্যমেই কর্মীরা জানতে পারবেন তাঁদের নির্দিষ্ট স্থানে যাতায়াত করা সম্ভব হবে কি না।

কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে জারি করা নির্দেশিকা

নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, অ্যাপ যদি কোনও কর্মীকে ‘হাই রিস্ক’ দেখায় তাহলে সেক্ষেত্রে তিনি দফতরে হাজিরা দেবেন না। সেল্ফ আইসোলেশন ১৪ দিন কাটাবেন। যতদিন না অ্যাপ তাঁকে ‘সেফ’ বা নিরাপদ হিসেবে ঘোষণা করে, তত দিন তাঁকে এই অবস্থায় থাকতে হবে বলে জানিয়েছে নির্দেশিকা।

দেশে করোনার সংক্রমণের হার ও গতিপ্রকৃতির উপরে নজর রাখতে এই অ্যাপ তৈরি করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। গত ২ এপ্রিল অ্যাপটি চালু করা হয়েছে। ট্র্যাকিং প্রযুক্তি কাজে লাগিয়ে আক্রান্ত ও সম্ভাব্য আক্রান্তদের উপরে নজর রাখতে এই অ্যাপ। করোনা আক্রান্ত কোনও ব্যাক্তি যদি আপনার কাছাকাছি চলে আসে, তাহলে তা সঙ্গে সঙ্গে জানিয়ে দেবে এই অ্যাপ।