Tuesday, April 23, 2024
আন্তর্জাতিক

ফের বাংলাদেশের দিনাজপুরে দুর্গা প্রতিমা ভাঙচুর

আবারও বাংলাদেশের সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর হামলা। দিনাজপুর জেলার চিরিরবন্দরে রাতের অন্ধকারে একটি মন্দিরের দুর্গা প্রতিমাসহ শারদীয় দুর্গাপূজা মণ্ডপের সব প্রতিমার মাথা ভেঙে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার (২১ সেপ্টেম্বর) ভোররাত ৩টার দিকে চিরিরবন্দর উপজেলার সাতনালা ইউনিয়নের ডাঙ্গিরপাড়া বটতলা দুর্গা মণ্ডপে এই ঘটনা ঘটে।

ওই পূজামণ্ডপ কমিটির সদস্য ধনঞ্জয় রায় জানান, গভীর রাত পর্যন্ত কারিগররা প্রতিমায় রঙের কাজ করেছেন। তারা চলে যাওয়ার পর আমরা রাত ৩টা পর্যন্ত মণ্ডপ পাহারা দিয়েছি। অথচ সকালে আমরা মণ্ডপে এসে দেখতে পাই মন্দিরের ভেতর দুর্গা, লক্ষ্মী ও সরস্বতীর মাথা ভেঙে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

বাংলাদেশ পূজা উদযাপন কমিটি চিরিরবন্দর শাখার সাধারণ সম্পাদক লিটন বর্মন বলেন, গত বছরেও ওই মন্দিরের প্রতিমা ভাঙচুরের চেষ্টা ভাঙচুরের চেষ্টা চালিয়েছিল দুর্বৃত্তরা।

চিরিরবন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. হারেসুল ইসলাম জানান, এই ঘটনায় জড়িত কাউকে এখনও পর্যন্ত শনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ তবে দুর্বৃত্তদের আটক করে আইনের আওতায় আনার প্রক্রিয়া চলছে। ওই এলাকায় নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।

চিরিরবন্দর উপজেলার নির্বাহী অফিসার মো: গোলাম রব্বানী জানান, আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি।  প্রতিমাগুলো আপাতত পুনর্নির্মাণের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এ নিয়ে চলতি বছরে দিনাজপুর জেলার ৩টি স্থানে শারদীয় দুর্গাপূজা মণ্ডপের প্রতিমা ভাঙচুরের ঘটনা ঘটলো। এর আগে গত ২৬ আগস্ট দিনাজপুরের সদর উপজেলার মাশিমপুর ও ফুলতলায় প্রতিমা ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে এবং গত ১৭ সেপ্টেম্বর রাতে বীরগঞ্জ উপজেলা সদরে সনাতনপাড়া সার্বজনীন দুর্গা প্রতিমাসহ ৪টি প্রতিমার মাথা ভাঙচুর করে দুর্বৃত্তরা।

বাংলাদেশে প্রতিমা ভাঙার ঘটনা এই প্রথম নয়। বিগত বছরগুলিতেও হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর হত্যা-জখম-নির্যাতন, মন্দির ভাঙচুর, মন্দিরের পুরোহিত হত্যা, লুটপাট, বাড়ীতে হামলা ও অগ্নিসংযোগের মতো ঘটনা অব্যাহত ছিল পদ্মাপারের দেশের।