Thursday, April 25, 2024
আন্তর্জাতিক

১৪ বছরে এক ছাত্রীর জন্য নতুন স্টেশন দিল রেল কর্তৃপক্ষ

সেন্ট পিটার্সবার্গ: ১৪ বছর বয়সী কারিনা কোজলোভার বাড়ি রাশিয়ার প্রত্যন্ত অঞ্চল পোয়াকোন্ডায়। কারিনা কোজলোভার পড়ালেখার জন্য বাধা হয়ে দাঁড়িয়ে ছিল যোগাযোগ ব্যবস্থা। পোয়াকোন্ডায় কোন হাইস্কুল না থাকায় বেশিরভাগ ছাত্রছাত্রীকেই প্রাইমারি স্কুলের পর লেখাপড়া বাদ দিতে হয়। আর কেউ যদি একান্তই লেখাপড়া করতে চায় তাহলে তাকে অন্য এলাকায় গিয়ে পড়তে হয়। শহরের সাথে এখানকার মানুষের যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম ট্রেন। তাও সব ট্রেন এখানে থামে না। ভোর বেলা শহরগামী একটি ট্রেন আর রাত নয়টায় শহর থেকে ফেরা শেষ ট্রেনটিই এখানে একবার করে থামে।

কিন্তু রেল কর্তৃপক্ষ কারিনার জন্য তাদের সেই নিয়মে পরিবর্তন এনেছে। একমাত্র যাত্রী কারিনার জন্য পোয়াকোন্ডায় ট্রেন থামানোর ব্যবস্থা করেছে রেল কর্তৃপক্ষ। আগে স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার জন্য তাকে অপেক্ষা করতে হতো রেলের স্টাফদের বাড়ি ফেরা পর্যন্ত। কিন্তু কারিনার মায়ের অনুরোধে রেল কর্তৃপক্ষ বিকাল বেলা ঐ পথ দিয়ে যাওয়া একটি ট্রেন থামানোর ব্যবস্থা করে দিয়েছে। এর ফলে আগের থেকে অনেক আগে বাড়ি ফিরতে পারে সে। একজন যাত্রীর জন্য বিশেষ এই ব্যবস্থা করার ঘটনাটি অনেকেরই মন জয় করেছে।

এমনই ঘটনা ২০১৬-য় দেখা গিয়েছিল জাপানেও। কামি-শিরাটাকি নামে কলেজ পড়ুয়ার জন্য রোজ নিয়ম করে দু’বার ট্রেন এসে দাঁড়াতো। ওই ট্রেনে করেই কলেজে যাতায়াত করতেন শিরাটাকি।