Sunday, April 21, 2024
কলকাতা

মোবাইলে গেম লোভ দেখিয়ে ৪ বছরের শিশুকে যৌন নির্যাতন মুর্শিদাবাদে

রানিনগর: রাজ্যে একের পর এক শিশু যৌন নির্যাতনের ঘটনা ঘটে চলেছে। এবার মুর্শিদাবাদে। মোবাইলে গেম খেলার লোভ দেখিয়ে ৪ বছরের শিশুকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ। মুর্শিদাবাদের রানিনগরের এই ঘটনায় অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

নির্যাতিত শিশুর মা-বাবার দাবি, রবিবার মোবাইল ফোনে গেম খেলার কথা বলে ওই চার বছরের শিশুকন্যাকে ডেকে নিয়ে যায় প্রতিবেশী মর্তুজা শেখ। তারপর সে ওই শিশুটির ওপর যৌন নির্যাতন চালায় বলে অভিযোগ।

অভিযোগ, এই ঘটনার পর শিশুটি কোনওমতে বাড়ি ফিরে আসে। আতঙ্কে মুখ দিয়ে কথা বেরোচ্ছিল না। যন্ত্রণায় অঝোরে কাঁদতে কাঁদতে কোনওমতে মায়ের কাছে সব জানায় সে।

অসুস্থ শিশুটিকে নিয়ে মা-বাবা প্রথমে রানিনগর হাসপাতালে যান। কিন্তু, সেখান থেকে তাঁদের আগে থানায় অভিযোগ জানাতে বলা হয়। এর মধ্যে শিশুটির অবস্থার অবনতি হওয়ায় গ্রামের এক চিকিৎসককে দেখানো হয়। রাতে রানিনগর থানায় অভিযোগ দায়েরের পর শিশুটিকে ভর্তি করা হয় ডোমকল মহকুমা হাসপাতালে। অবস্থার অবনতি হওয়ায় সেখান থেকে তাকে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

হাসপাতাল সূত্রে দাবি, ৪ বছরের শিশুটি এখনও যন্ত্রণায় ক্রমাগত কাঁদছে। পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযুক্ত মর্তুজা শেখকে গ্রেফতার করেছে। অভিযুক্ত মর্তুজা শেখের বিরুদ্ধে পকসো আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এর আগে দক্ষিণ কলকাতার রানীকুঠির জি ডি বিড়লা স্কুলে চার বছরের এক শিশু যৌন নির্যাতনের শিকার হয়। শিশুটির মা জানায়, স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পর শিশুটির পোশাকে রক্তের দাগ দেখতে পান তিনি। শিশুটি কাঁদতে থাকে। তাকে স্থানীয় একটি নার্সিং হোমে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে তাকে কলকাতার পিজি হাসপাতালে নেওয়া হয়। শিশুটি বর্তমানে সেখানে চিকিৎসাধীন। নির্যাতিতার মায়ের অভিযোগ, ওই স্কুলের শারীরিক শিক্ষার শিক্ষক শিশুটিকে শৌচাগারে নিয়ে যৌন হেনস্তা করেন।