Saturday, June 15, 2024
দেশ

লাদাখে ভারতীয় জওয়ানরা পাল্টা খতম করেছে কমপক্ষে ৩৫ চিনা সেনাকে, মার্কিন রিপোর্ট

নয়াদিল্লি: সোমবার রাতে পূর্ব লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় সংঘর্ষে অন্তত ৩৫ জন চিনা সেনা মারা গিয়েছে, এমনটাই দাবি করা হয়েছে মার্কিন রিপোর্টে। উল্লেখ্য, এদিন রাতের তীব্র সংঘর্ষে শহিদ হয়েছেন ২০ জন ভারতীয় জওয়ান। কিন্তু চিনের তরফে হতাহতের সংখ্যা প্রকাশ করা হয়নি।সেদেশের সংবাদমাধ্যমেও স্পষ্ট করে কোনও তথ্য দেয়নি। মঙ্গলবার রাতে সংবাদসংস্থা এএনআই জানায়, চিনের তরফে হতাহত ৪৩ জন।

এদিকে, ভারত-চিন সীমান্ত সংঘাতের দিকে তীক্ষ্ণ নজর রয়েছে আমেরিকার। মার্কিন সংবাদসংস্থার (US News and World Report) দাবি, ভারতের পাল্টা জবাবে চিনা সেনা মারা যাওয়ার বিষয়টি অত্যন্ত অপমানজনক ভাবছে চিন। পশাপাশি, প্রতিপক্ষের মনোবল বাড়ার আশঙ্কায় উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ক্ষয়ক্ষতি ও হতাহতের আসল হিসেব আড়াল করছে বেইজিং।


আমেরিকার গোয়েন্দা বিভাগ জানিয়েছে, দুর্গম পার্বত্য এলাকায় দুই পক্ষের সেনার মুখোমুখি সংঘর্ষে বেশিরভাগ মৃত্যুই হয়েছে ব্যাটনের আঘাতে, ছুরির আঘাতে এবং পাহাড় থেকে নীচে পড়ে গিয়ে।

মার্কিন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে বলা হয়েছে, আমরা ভারত-চিন আন্তর্জাতিক সীমান্তের মাঝামাঝি অবস্থিত প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় (LAC) দুই দেশের সেনার মধ্যে সংঘর্ষে পরিস্থিতির উপরে খুঁটিয়ে নজর রাখছি। আমরা দেখেছি, ভারত ২০ জন সেনার মৃত্যুর কথা জানিয়েছে এবং তাঁদের পরিবারের প্রতি আমরা সমবেদনা জানাচ্ছি। ভারত ও চিন উভয়েই শান্তিপূর্ণভাবে সমঝোতায় আসার ইচ্ছা প্রকাশ করেছে এবং আমরাও চাই বর্তমান সমস্যার শান্তিপূর্ণ সমাধান হোক।

পাশাপাশি, চিনা সেনার আগ্রাসনের তীব্র সমালোচনা করেছে আমেরিকার স্বরাষ্ট্র দফতর। এলিয়ট অ্যাঙ্গেল বলেন, ভারত-চিন সীমান্তে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর সাম্প্রতিক চিনা আগ্রাসন নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন।