Monday, April 22, 2024
বিনোদন

বিবাহের উপযুক্ত মেয়ে চেনার উপায়

কথায় আছে “মেয়েদের মনের কথা এক বিছানায় শুয়ে থাকা মানুষটিও কখনোই বুঝতে পারে না! তাহলে আপনি বুঝবেন কি করে?

1. কথা বলার ভঙ্গি:- সাধারনত যে সকল মেয়েরা ভদ্র স্বভাবের তারা আস্তে ধীর স্থির ভাবে কথা বলে। তারা কথা বলার সময় কোন প্রকার অঙ্গভঙ্গি করে না। মুখে সবসময় হাসি হাসি ভাব থাকে।

2. পোশাক-পরিচ্ছেদ:- ভদ্র মেয়েদের পোশাকে সর্বদা শালীনতা বজায় থাকে।

3. তাকানোর ধরন:- ভদ্র মেয়েরা অনেকটাই লাজুকে স্বভাবের হয়ে থাকে। তারা পুরুষদের চোখের দিকে তাকিয়ে কথা বলে না। তারা ধীর গতিতে মাটির দিকে তাকিয়ে হাটে।

4. ঘরকুনু স্বভাবের:- ভদ্র মেয়েরা সাধারনত খুব বেশি একটা বাহিরে বেড়াতে পছন্দ করেনা। তারা বেশির ভাগ সময় ঘর সাজানোর কাজে নিজেকে ব্যস্ত রাখে।

5. রাগ করা:- সাধারনত ভদ্র মেয়েরা অনেকটাই প্রতিবাদি স্বভাবের হয়ে থাকে। তারা একবার রেগে গেলে রাগ ভাঙ্গাতে অনেক কষ্ট করতে হয়।

6. সিরিয়াল না দেখা:- টিভি সিরিয়ালের উপকারের চাইতে অপকারের দিক অনেক বেশি। তাই ভদ্র মেয়েরা টিভি সিরিয়ালের চেয়ে লেখালেখি, গান, কবিতা, গল্পের কিংবা পাঠ্যবই পড়াতেই নিজেদেরকে ব্যস্ত রাখে।

7. হিংসুটে স্বভাবের হয়না:- ভদ্র মেয়েরা কখনই অহংকারী হয়না। তারা যেকোন পরিস্থিতিতে নিজেকে মানিয়ে নিতে পারে। তাদের মধ্যে হিংসা নামক জিনিসটা মোটেও থাকে না।

8. পরনিন্দা না করা:- তারা অপরকে নিয়ে চর্চা করতে মোটেও পছন্দ করেনা।

9. ফেসবুক:- ভদ্র মেয়েরা খুব একটা ফেসবুক কিংবা টুইটার ব্যবহার করে না আর করলেও নিজেদের ছবি আপলোড করে না।

10. প্রেম-ভালোবাসা:- তাদের কাছে তাদের মা-বাবার সম্মান অনেক বড়। তারা প্রেম ভালোবাসা এড়িয়ে চলে। তবে যদি কখনও কাউকে ভালোবেসে ফেলে তবে সম্পর্কটাকে আজীবন টিকিয়ে রাখার চেষ্টা করে।

11. কম বন্ধু-বান্ধব:- ভদ্র মেয়েদের সাধারনত অনেকটাই আত্মকেন্দ্রিক হয়ে থাকে। তাদের বন্ধু-বান্ধবের সংখ্যা অনেক কম হয়। বন্ধুদের আড্ডা দিতে তারা খুব একটা পছন্দ করেনা।

12. রান্নাবান্নায় পটু হওয়া:- ভদ্র মেয়েরা সমস্ত বাড়ির কাজের পাশাপাশি রান্নাও পটু হয়। ঘরকুনু স্বভাবের কারনে মা অথবা বৌদির থেকে রান্নাটা খুব ভালো করে শিখে নেয়।