Tuesday, April 23, 2024
খেলা

‘ভারতীয় দলে কেন মুসলিম নেই?’ এই প্রশ্নকে ঘিরে বিতর্কের ঝড়

‘বর্তমানে ভারতীয় ক্রিকেট দলে কি কোনো মুসলিম ক্রিকেটার আছে? দলে মুসলিম ক্রিকেটার ছিল না, স্বাধীনতার (১৯৪৭) পর কয়বার এমনটি ঘটেছে? মুসলিমরা কি ক্রিকেট খেলা ছেড়ে দিয়েছে? নাকি নির্বাচকরা আলাদা খেলার নিয়ম-কানুন অনুসরণ করছেন? গত ২২ অক্টোবর দুপুরে নিজের ফেসবুক ও টুইটার অ্যাকাউন্টে দল নির্বাচন নিয়ে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিআই) প্রতি এসব প্রশ্ন ছুড়ে দেন গুজরাট পুলিশের সাবেক ঊর্ধ্বতন কমকর্তা সঞ্জীব ভাট। তবে এসব প্রশ্নের উত্তর এখনো দেয়নি বোর্ড। এই প্রশ্ন তুলে তোপের মুখে পড়েছেন সঞ্জীব ভাট।

সাবেক ক্রিকেটার হরভজন সিং থেকে শুরু করে বহু সাধারণ ভারতীয় সোশ্যাল মিডিয়াতে মি ভাটকে এক হাত নিয়েছেন। তারা সবাই সঞ্জীব ভাটকে মনে করিয়ে দিয়েছেন, ভারতের ক্রিকেট টিমে যারা খেলেন তারা সবাই ভারতীয় – তাদের আলাদা আলাদা ধর্মের ভিত্তিতে দেখার কোনও দরকার নেই।

জাতীয় দলের সাবেক স্পিনার হরভজন সিং পাল্টা টুইটে লিখেন, ‘হিন্দু, মুসলিম, শিখ, খ্রিস্টান সবাই একে-অপরের ভাই। ক্রিকেট দলের জন্য যারা খেলেন, তারা প্রত্যেকে হিন্দুস্থানি। এ ক্ষেত্রে জাত-বর্ণ কিংবা ধনী-গরীবের বিষয় নেই। এসব কথা তোলাই উচিত নয়।’

সঞ্জীব ভাটের তেড়েফুঁড়ে প্রশ্ন ছোড়ার পরদিনই নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে ৩ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম দুই টেস্টের জন্য দল ঘোষণা করেছে বিসিসিআই। কিউইদের বিপক্ষে ভারতীয় টি-টোয়েন্টি দলে সুযোগ পেয়েছেন দেশের তরুণ প্রতিভাবান পেসার মোহাম্মদ সিরাজ। আর টেস্ট দলে রয়েছেন মহম্মদ শামি।

সঞ্জীব ভাটের এ অভিযোগ তোলার মাত্র সপ্তাহতিনেক আগেই ভারতের হয়ে ব্যাঙ্গালোরে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে এক দিনের আন্তর্জাতিক খেলেছেন মহম্মদ শামি। তিন ফর্ম্যাটেই তিনি ভারতীয় দলে বেশ নিয়মিত একজন ক্রিকেটার।

হায়দ্রাবাদের ফাস্ট বোলার মোহাম্মদ সিরাজও নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে টিটোয়েন্টি সিরিজে ভারতীয় দলে ডাক পেয়েছেন।

অতীতে মনসুর আলি খান (টাইগার) পাতৌদি, মহম্মদ আজহারউদ্দিনের মতো ক্রিকেট লেজেন্ডরা শুধু ভারতীয় দলের হয়ে খেলেনইনি, বহু বছর ভারতীয় দলকে নেতৃত্বও দিয়েছেন।

তা সত্ত্বেও সঞ্জীবের এসব প্রশ্ন ছোড়াকে উসকানিমূলক হিসেবে দেখছেন হরভজন। ভাজ্জির মতে, এসব আলোচনা সাম্প্রদায়িকতাকে উসকে দিতে পারে।