Monday, June 24, 2024
রাজ্য​

কোচবিহারে দুষ্কৃতীর গুলিতে খুন তৃণমূল নেতা

কোচবিহার: অর্জুন মণ্ডল নামে স্থানীয় এক কুখ্যাত দুষ্কৃতী বেশ কিছুদিন ধরে এলাকায় অশান্তি ছড়াচ্ছিল। শুক্রবার রাতে তাকে ধরে ফেলে এলাকাবাসী। প্রাণে বাঁচতে নির্মিয়মাণ একটি বাড়িতে ঢুকে যায় সে। এরপর বন্দুক থেকে লক্ষ্যহীন উদ্দেশ্যে গুলি ছুঁড়তে থাকে সে। দুষ্কৃতীর ছোঁড়া সেই গুলিই গিয়ে লাগে তৃণমূলের বুথ স্তরের নেতা মুজিবর মিঞার (৪৫) মাথায়। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাঁর। অভিযুক্ত অর্জুন মণ্ডল পলাতক। তার খোজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সম্প্রতি সিতাই এলাকায় আত্মীয়ের বাড়িতে এসে ওঠে দুষ্কৃতী অর্জুন মণ্ডল। এই ঘটনায় ক্ষোভে ফুঁসছিলেন স্থানীয় বাসিন্দারা। তাঁদের অভিযোগ, বোর্ড গঠনের দিন অশান্তি বাধাতেই এলাকায় এসেছে অর্জুন। শুক্রবার রাতে ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী অর্জুনের উপস্থিতির প্রতিবাদে পথে নেমে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। এই ঘটনায় বিপাকে পড়ে যায় ওই দুষ্কৃতী।

পালানোর চেষ্টা করলে অর্জুনকে ঘেরাও হয়ে যায়। প্রাণে বাঁচতে নির্মিয়মাণ একটি বাড়িতে ঢুকে যায় সে। এরপর সঙ্গে বন্দুক থেকে লক্ষ্যহীন গুলি ছোঁড়ে সে। সেই গুলিই এসে লাগে তৃণমূল নেতা মুজিবর মিঞার মাথায়। সঙ্গেসঙ্গেই তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। তড়িঘড়ি তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন।

অবস্থা বেগতিক বুঝে এলাকা ছেড়ে চম্পট দেয় অর্জুন। এই ঘটনায় অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারের দাবিতে সরব হয়েছে তৃণমূলের কর্মী সমর্থকরা। জেলা তৃণমূলের সভাপতি তথা উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ বলেছেন, দুষ্কৃতীরা গুলি করে মুজিবর মিঞাকে খুন করেছে। এ ব্যাপারে পুলিশকে জানানো হয়েছে।