Monday, June 24, 2024
দেশ

প্রকাশ্যে গোহত্যার কারণে কেরলে বন্যা: বিজেপি বিধায়ক

বেঙ্গালুরু: প্রচণ্ড বন্যার পর ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে কেরলের জনজীবন ৷ বৃষ্টি থেমে যাওয়ায় জল নেমে গিয়েছে বিভিন্ন জায়গায় ৷ শুরু হয়েছে বিমান ও ট্রেন চলাচলও। ঘরে ফিরছেন ত্রাণশিবিরে আশ্রয় নেওয়া মানুষ, চলছে বাড়িঘর পরিষ্কার করে বাসযোগ্য করে তোলার প্রচেষ্টা। এর মধ্যেই বিতর্কিত মন্তব্য করলেন কর্নাটকের বিজয়পুরার বিজেপি বিধায়ক বাসনাগৌড়া পাটিল ইয়ান্তাল। তিনি বলেছেন, প্রকাশ্যে গোহত্যার কারণেই কেরলে বন্যা হয়েছে।

বিজেপি বিধায়কের দাবি, গোহত্যার মাধ্যমে হিন্দু আবেগকে আহত করাই কেরল বন্যার কারণ। তাঁর কথায়, যদি হিন্দুদের অনুভূতিতে আঘাত করা হয়, ধর্মই আঘাতকারীদের সাজা দেবে। যেমন ধরুন কেরল। তা দেবভূমি নামে পরিচিত কিন্তু সর্বত্র গোহত্যা হয়। বিফ ফেস্টিভ্যালের এক বছরের মধ্যেই বন্যায় গোটা রাজ্য ভেসে গেল।

প্রসঙ্গত, গতমাসেও একটি বিতর্কিত মন্তব্য করে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন বাসনাগৌড়া পাটিল। বলেছিলেন, তিনি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হলে বুদ্ধিজীবীদের গুলি করে মেরে দিতেন। কারণ, বুদ্ধিজীবীরা নাকি জঙ্গিদের মানবাধিকার নিয়ে চিত্‍‌কার করেন। সীমান্তের সেনা জওয়ানদের জন্য নয়।

এদিকে হিন্দু মহাসভা নেতা স্বামী চক্রপাণি বলেছেন, দেবদেবীকে অপমান করার জেরেই কেরলে এমন বিধ্বংসী বন্যা এসেছে। তাঁর বক্তব্য, গোহত্যা, দেবদেবীকে অসম্মান ও হিন্দু ভাবাবেগে আঘাত দেওয়াই এমন প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণ।

উল্লেখ্য, কেরলের বন্য়ায় প্রায় ৪০০ মানুষের মৃত্যুর খবর উঠে এসেছে। এখনও নিখোঁজ রয়েছেন অনেকে। অনেকই সহায় সম্বলহীনভাবে রয়েছেন ত্রাণ শিবিরে।