Tuesday, June 18, 2024
দেশ

কেরলে বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৮৭, চলছে উদ্ধারকাজ

তিরুঅনন্তপুরম: বন্যা বিধ্বস্ত কেরলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেমেছে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী। অবিরাম বৃষ্টিপাতের ফলে কার্যত অচল হয়ে পড়েছে জাতীয় সড়কগুলিও। বন্যা পরিস্থিতি ক্রমশ উদ্বেগজনক হয়ে উঠছে। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। এখনও পর্যন্ত বন্যায় ৮৭ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

গত ৭১ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভয়ঙ্কর বন্যার সম্মুখীন কেরলের বাসিন্দারা। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে দক্ষিণ রেলওয়ে পরিষেবা। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে কোচি মেট্রো পরিষেবাও। কোচি বিমানবন্দরও বন্ধ থাকবে শনিবার দুপুর ২টা পর্যন্ত।

বন্যা দুর্গতদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হচ্ছে। লাগাতার বৃ্ষ্টিপাতে স্তব্ধ হয়েছে জীবন, বিচ্ছিন্ন হয়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা, বন্যার ফলে দেখা দিয়েছে জলবাহিত রোগ আস্তে আস্তে মহামারীর রূপ নিচ্ছে।

কেরলের মুখ্যমন্ত্রীর পিনারাই বিজয়ন ক্রমাগত পরিস্থিতির দিকে নজর রাখছেন। বন্যা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে তৎপর হয়েছে কেন্দ্রও। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের নির্দেশে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর আরও বেশ কয়েকটি দল গিয়েছে কেরলে।  প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারমন একটি ট্যুইটে জানিয়েছেন কেরলে আরও বেশি সংখ্যক লাইফ জ্যাকেট,নৌকা ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিষপত্রের সরবরাহ করতেও প্রস্তুত প্রতিরক্ষামন্ত্রক।

বন্যা দুর্গতদের জন্য ১০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণের ঘোষণা করেছেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন। যাঁরা নিজেদের জমি ও ঘর দুটোই হারিয়েছেন, তাঁদের দেওয়া হচ্ছে ১০ লক্ষ টাকা। যেখানে ৬ লক্ষ টাকা জমি কেনার জন্য। ৪ লক্ষ টাকা বাড়ি তৈরী করার জন্য। বন্যাদুর্গতদের মধ্যে যাঁদের গুরুত্বপূর্ণ নথি হারিয়ে গেছে তাঁদের বিনামূল্যে নথি তৈরি করার আশ্বাস দিয়েছে প্রশাসন।