Friday, July 19, 2024
আন্তর্জাতিক

নোবেল শান্তি পুরষ্কার পেলেন ইরানের কারাগারে আটক নার্গেস মহম্মদি

কলকাতা ট্রিবিউন ডেস্ক: ইরানের নারী অধিকার কর্মী নার্গেস মহম্মদি (৫১) নোবেল শান্তি পুরষ্কারে ভূষিত হয়েছেন। নোবেল কমিটি জানিয়েছে, ‘ইরানে নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য নার্গেস মহম্মদিকে শান্তি পুরষ্কার দেওয়া হয়েছে। তিনি ইরানে মানবাধিকার রক্ষা এবং সকলের স্বাধীনতা নিশ্চিত করার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।’

মিথ্যা প্রচারণার অভিযোগে নার্গেস মহম্মদিকে বর্তমানে ইরানের কুখ্যাত এভিন জেলে আটক রাখা হয়েছে। ২০১১ সাল থেকে তাকে বেশ কয়েক-দফা কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

ইরানের নোবেল বিজয়ী শিরিন এবাদির প্রতিষ্ঠিত হিউম্যান রাইটস সেন্টারের উপ-প্রধান নার্গেস মহম্মদি। পুরষ্কার ঘোষণার সময় নোবেল কমিটি বলেছে, ‘নার্গেস মহম্মদির সাহসী ভূমিকার জন্য ব্যক্তিগত জীবনে তাকে চরম মূল্য দিতে হয়েছে।’

নরওয়েজিয়ান নোবেল কমিটির প্রধান বেরিট রেইস-এন্ডারসেন বলেন, ‘সবমিলিয়ে ইরানের শাসক গোষ্ঠী তাকে ১৩ বার গ্রেফতার করেছে। এরমধ্যে তাকে পাঁচবার দোষী সাব্যস্ত করে সর্বমোট ৩১ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। বর্তমানে তিনি কারাগারে রয়েছেন। আমরা আশা করছি শ্রীঘ্রই তাকে মুক্তি দেবে ইরান সরকার। যাতে তিনি নভেম্বরে নোবেল পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পারেন।’

এদিকে, ইরানের বার্তা সংস্থা বলেছে, ‘জাতীয় নিরাপত্তার বিরুদ্ধে কাজ করার জন্য’ নার্গিস মহম্মদিকে নোবেল পুরষ্কার দেয়া হয়েছে। ‘পশ্চিমাদের কাছ থেকে পুরষ্কার’ পেয়েছেন তিনি।’

জাতিসংঘ বলেছে, ‘ক্রমাগত সহিংসতা, ভয়ভীতি দেখানো, হয়রানি এবং আটকের ঘটনার মধ্যে ইরানের নারীরা যে সাহসী ভূমিকা পালন করছে নোবেল পুরষ্কারের মাধ্যমে সেটির প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন করা হলো।’

বিবিসির কূটনৈতিক সংবাদদাতা ক্যারোলাইন হাওলি বলছেন, ‘কারাগার থেকে মুক্ত হয়ে নার্গেস মহম্মদি নোবেল পুরষ্কার গ্রহণ করার সম্ভাবনা খুবই কম। কারণ, বর্তমানে তিনি ইরানের এভিন কারাগারে ১০ বছরের সাজা ভোগ করছেন।’

উল্লেখ্য, ডিসেম্বরের ১০ তারিখে নোবেল পুরস্কারজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হবে। সুইডেনের রাজধানী স্টকহোমে অনুষ্ঠানের মাধ্যমে।