Monday, June 24, 2024
দেশ

গোয়ায় জোর ধাক্কা খেল কংগ্রেস, বিজেপিতে যোগ দিলেন ২ বিধায়ক

গোয়া: কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী যখন মধ্যপ্রদেশে নির্বাচনী প্রচারে ব্যস্ত, তখন গোয়ার দুই কংগ্রেস বিধায়ক সুভাষ শিরোদকার ও দয়ানন্দ সোপ্তে বিজেপিতে যোগদান করেছেন। মঙ্গলবার রেলমন্ত্রী পীযুষ গোয়েল তাঁদের হাতে দলের পতাকা তুলে দেন। এদিন দিল্লিতে বিজেপির কেন্দ্রীয় পার্টি অফিসে কংগ্রেস বিধায়ক দয়ানন্দ সোপ্তে ও সুভাষ শিরোদকারকে বরণ করে নেওয়া হয়।

এর ফলে গোয়া বিধানসভায় জোর ধাক্কা খেল কংগ্রেস। ৪০ সদস্যের বিধানসভায় কংগ্রেস ১৬ থেকে কমে দাঁড়াল ১৪-য়। একক বৃহত্তম দলের তকমা হারাল কংগ্রেস। বিজেপির সাফ বার্তা, বেশি বাড় বাড়লে এভাবেই ছেঁটে দেওয়া হবে কংগ্রেসকে। সোমবার রাতে ওই ২ বিধায়ক আচমকা দিল্লি যাওয়ায় তাদের দল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান নিয়ে জল্পনা দেখা দিয়েছিল।

মঙ্গলবার সকালে প্রথমে বিজেপি সভাপতি অমিত শাহের সঙ্গে দেখা করেন গোয়ার কংগ্রেসের ২ বিধায়ক দয়ানন্দ সোপ্তে ও সুভাষ শিরোদকার। এর পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে শিরোডকর বলেন, আমরা বিজেপিতে যোগদান করছি। আমাদের সঙ্গে আরও ২-৩ জন বিধায়ক রয়েছেন। অনুমান তাঁরাও দ্রুত বিধায়ক পদে ইস্তফা দিয়ে দলত্যাগ করে বিজেপি যোগ দেবেন বলে অনুমান।

গোয়া বিধানসভার অধ্যক্ষ প্রমোদ সওয়ান্ত ২ বিধায়কের ইস্তফাপত্র জমা দেওয়ার কথা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ওই ২ বিধায়ক স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করছেন। তাঁদের ওপর কোনও পদত্যাগের কোনও চাপ ছিল না বলেও উল্লেখ করা হয়েছে চিঠিতে। তাই আমি পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছি।

যদিও কংগ্রেসের তরফে অভিযোগ, এসবের পিছনে রয়েছে বিজেপির চক্রান্ত। বিজেপি ভয় দেখিয়ে তাঁদেরক নিজেদের দলে যোগদান করিয়েছে। সেইসঙ্গে দেখানো হয়েছে প্রলোভনও। আর এই কাজে বিজেপি কাজে লাগিয়েছে কংগ্রেস থেকে ভাঙিয়ে নিয়ে যাওয়া এক বিধায়ককেই।