Monday, June 24, 2024
দেশ

সফল হচ্ছে ‘বয়কট চিন’, এক ধাক্কায় কমল ২৫ শতাংশ চিনা পণ্যের আমদানি

নয়াদিল্লি: চিনের উহান থেকে করোনা ছড়িয়ে পড়ার পরে দেশজুড়ে চিনা পণ্য বয়কটের দাবি ওঠে। এরপর গত ১৫ জুন পূর্ব লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় চিনের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনার পরে সেই দাবি আরও জোরালো হয়। এরপর একের পর চিনা সংস্থার সঙ্গে বরাত বাতিল করে ভারত।ইতিমধ্যেই অনেকগুলি চিনা অ্যাপও ভারতে নিষিদ্ধ করেছে ভারত।

যার ফলে আর্থিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে চিন। চিনের আবগারি দফতরের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, এবছরের শুরু থেকে এখনও পর্যন্ত ভারতে চিনা পণ্যের আমদানির পরিমাণ কমেছে প্রায় ২৫ শতাংশ। যার জেরে হাজার হাজার কোটি টাকা লোকসান হয়েছে চিনা সংস্থাগুলির।

তথ্য বলছে, এবছর জানুয়ারি থেকে জুলাই পর্যন্ত ভারত চিন থেকে ৩২.২৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের পণ্য আমদানি করেছে। যা গত বছর এই একই সময়ের থেকে প্রায় ২৪.৭ শতাংশ কম।

তবে পাল্টা চিনও ভারত থেকে পণ্য আমদানি কমিয়েছে। তবে ভারত থেকে এমনিতেই কম পণ্য আমদানি করে থাকে চিন। জানা গিয়েছে, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে এখনও পর্যন্ত ভারত থেকে চিনে রফতানি কমেছে ৬.৭ শতাংশ। সামগ্রিকভাবে এবছর চিনের সঙ্গে ভারতের লেনদেন কমেছে ১৮.৬ শতাংশ। যার বেশিরভাগটাই আমদানি। ফলে সীমান্ত ইস্যুতে চিন যে আর্থিক দিক থেকে বড়সড় ধাক্কা খেল তা বলা বাহুল্য।