Wednesday, July 24, 2024
দেশ

নৃশংসভাবে গর্ভবতী বাঘিনীকে হত্যা করলো চোরা শিকারিরা, গর্ভে ৪ সন্তান

মুম্বাই: কেরলে বাজি ভর্তি আনারস খাইয়ে অন্তঃসত্ত্বা হাতিকে খুনের ঘটনার স্মৃতি আজও দগদগে। ফের তেমনই নৃশংস ঘটনা সামনে এল। এবার নৃশংসভাবে হত্যা করা হল এক গর্ভবতী বাঘিনীকে। অন্তঃসত্ত্বা ওই বাঘিনীর গর্ভে ৪টি সন্তান ছিলো। তাদেরকে পৃথিবীর আলো দেখতে দিল না নরপিশাচ চোরা শিকারিরা।

মহারাষ্ট্রের ইয়াভাতমল এলাকার পান্ধারখাওয়াদা (Jhari-Jamni villages in the Pandharkawada Taluq of Yavatmal district of Maharashtra) জঙ্গলের গহিন অরণ্য থেকে গত রবিবার ৪ বছর বয়সী ওই বাঘিনীর মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। বন কর্মীরা জানিয়েছেন, বাঘিনীর মরদেহটি দেখে আঁতকে ওঠার মতো। বাঘিনীর সামনের ২ থাবা কাটা। মরদেহ উদ্ধারের পর বাঘিনীর গর্ভে পাওয়া যায় ৪ টি ভ্রূণ। এমন ভয়ংকরভাবে বাঘ হত্যার ঘটনা সচরাচর দেখা যায় না।

বন কর্মীরা জানিয়েছেন, বাঘিনীটি কয়েকদিনের মধ্যেই সন্তান প্রসব করতো। তাই জঙ্গলের ভিতর সে একটি গর্ত খুঁজে বার করেছিল যেখানে সে তার হবু সন্তানদের সুরক্ষিত রাখতে পারে। সেখানেই থাকছিল সে। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত চোরা শিকারিদের নজরে পড়ে যায় সে। গর্তটিতে ঢোকা এবং বার হওয়ার একটিই ছোট মুখ ছিল। যেটি চোরা শিকারিরা পাথর ও কাঠের টুকরো দিয়ে বন্ধ করে দেয়। এর ফলে বাঘিনী ওই গর্তে আটকে পড়ে যায়।

গর্তটিতে বাতাস চলাচল কমে যাওয়ায় প্রায় দমবন্ধ অবস্থা হয় বাঘিনীর। এরপর তার মৃত্যু নিশ্চিত করতে তার সারা গায়ে বাঁশের ধারালো মুখ এবং ধাতব রড দিয়ে খোঁচায় চোরা শিকারিরা। সারা গায়ে খোঁচানো রক্তাক্ত অবস্থায় অন্তঃসত্ত্বা ওই বাঘিনীকে উদ্ধার করে বন কর্মীরা। – Telangana Today