Monday, July 22, 2024
দেশ

বিরোধী জোটকে পাত্তা দিতে নারাজ বিজেপি

নয়াদিল্লি: ২০২৪ লোকসভা ভোটের এখনো তিন বছর বাকি। কিন্তু এখন থেকে প্রস্তুতি নেওয়া শুরু করল বিজেপি বিরোধী দলগুলো। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ২১ জুলাই শহিদ দিবসের মঞ্চ থেকে ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় সরকার বিরোধী সমস্ত দলগুলিকে এক জোট হওয়ার বার্তা দিয়েছেন। বিজেপি বিরোধী নেতা-নেত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করতে বর্তমানে পাঁচদিনের সফরে দিল্লিতে রয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার সোনিয়া গান্ধীর সাথে সাক্ষাৎ করেন তিনি। উপস্থিত ছিলেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীও।

বৈঠক শেষে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, সোনিয়াজি এবং রাহুল গান্ধীর সঙ্গে বৈঠক ইতিবাচক হয়েছে। বিজেপি বিরোধীদের একজোট হওয়া খুবই জরুরি। বিরোধী জোট নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এছাড়া পেগাসাস নিয়েও কথা হয়েছে।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর পাঁচ দিনের দিল্লি সফরে আরও বেশ কয়েকজন নেতা নেত্রীর সঙ্গে বিরোধী জোট গঠনের বিষয়ে সাক্ষাৎ করবেন। তালিকায় রয়েছে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালও। এছাড়া মমতার সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য সময় চেয়ে নিয়েছেন জাভেদ আখতার, শাবানা আজমি।

কেন্দ্রের মোদী সরকার বিরোধী এই সম্ভাব্য জোটকে কিভাবে দেখছে বিজেপি? বিজেপির মুখপাত্র সম্বিত পাত্র কটাক্ষ করে বলেন, আজ মমতাজি সোনিয়া গান্ধীজির বাড়িতে গিয়ে জোট গঠনের ব্যাপারে কথা বললেন। ২০১৮ সালে কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানের মঞ্চে তাঁরা একত্রিত হয়েছিলেন, গোটা দেশ দেখেছিল সেই ছবি। তখন তাঁরা বলছিলেন, সবাই এক জোট হয়ে বিজেপিকে হারাবেন। মোদীজিকে হারাবেন। ২০১৯ সালেও কলকাতায় বিরোধীরা একজোট হয়েছিল। কিন্তু প্রতিবারই তাঁরা ব্যর্থ হয়েছে। মানুষ জানে এটা নাটক।