Sunday, July 21, 2024
দেশ

১৭ বছরের কিশোরকে বিয়ে করায় গ্রেপ্তার ২২ বছরের যুবতী, অভিযোগ যৌন হেনস্থার

মুম্বাই: ভারতে নারীর ১৮ এবং পুরুষের ২১ বছর হলেই তারা বিয়ে করতে পারেন। মুম্বাই পুলিশ ১৭ বছর বয়সী একটি ছেলেকে বিয়ে করার অভিযোগে একজন নারীকে গ্রেপ্তার করেছে। অভিযুক্ত যুবতী ছেলেটির চেয়ে ছয় বছরের বড়। অর্থাত্‍ তার বয়স এখন ২২। অভিযুক্ত ওই যুবতী এখন মুম্বইয়ের বায়কুল্লা জেলে তাঁর পাঁচ মাসের সন্তানকে নিয়ে কারাবন্দি। আদালতের কাছে জামিনের আবেদন করলেও এখনও পর্যন্ত ওই যুবতীর জামিন মঞ্জুর হয়নি।

ভারতে অল্পবয়সীকে মেয়েকে বিয়ে করার অভিযোগে পুরুষ স্বামীকে গ্রেপ্তারের খবর অহরহ পাওয়া গেলেও কম বয়সী ছেলেকে বিয়ে করার অভিযোগে কোন নারীকে গ্রেপ্তারের ঘটনা বিরল। জানা গেছে, ওই কিশোরের মা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। তনি বলেন, তাঁর ছেলের উপর যৌন নির্যাতন চালানো হয়েছে। অভিযোগ, কিশোরককে নিজের সঙ্গে রাখার জন্য চাপ দেন যুবতী। কিশোরের সঙ্গে না থাকতে পারলে নিজেকে শেষ করে দেবেন বলেও হুমকি দিয়েছেন বলে দাবি কিশোরের মায়ের। এরপরই না কি কিশোর বাড়ি ছেড়ে চলে যায়।

যদিও ওই নারী জানিয়েছেন, তাদের দু’জনের সম্মতিতে এই বিয়ে হয়েছে। তার স্বামী প্রাপ্তবয়স্ক নয়- এই অভিযোগও তিনি অস্বীকার করেছেন। তবে ভারতীয় আইনে ছেলে মেয়ে দুজনের ক্ষেত্রেই যৌন সম্পর্কের ব্যাপারে অনুমতি দিতে তাকে ১৮ বছর বয়সী হতে হবে। আর বিয়ের জন্যে নারীকে হতে হবে ১৮, পুরুষকে ২১। ফলে এই মামলায় অভিযুক্ত ওই যুবতীর বিরুদ্ধে শিশু বিবাহ আইনেও মামলা দায়ের করা হয়েছে।