Tuesday, July 16, 2024
রাজ্য​

বাঙালি বিজ্ঞানীদের তৈরি মাত্র ৫০০ টাকার কিট, চেয়ে পাঠাল WHO

কলকাতা: চিন থেকে যে কিট আনা হয়েছে তার পিছনে খরচ হয়েছে প্রায় ১৪০০ টাকার মতো। এই কিটে করোনা সনাক্তে রিপোর্ট পেতেও অনেক সময় লাগছে। এই পরিস্থিতিতে সুখবর দিল বাঙালি বিজ্ঞানীরা। এবার পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ ২৪ পরগনার একটি বায়োটেক সংস্থা তৈরি করল বিশ্বের সবচেয়ে সস্তা করোনার কিট। সম্পূর্ণ দেশীয় সরঞ্জাম দিয়ে তৈরি এই কিটকে এরই মধ্যে স্বীকৃতি দিয়েছে আইসিএমআর।

৯০ মিনিটের মধ্যে রিপোর্ট দিতে সক্ষম এই কিটের দাম মাত্র ৫০০ টাকা। কিটটি তৈরি করছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাখরাহাটের জিসিসি বায়োটেক একটি সংস্থা। এই কিটের নাম দেওয়া হয়েছে ‘ডায়াগশিওর এনসিওভি -১৯ ডিটেকশন অ্যাসে’।

শনিবার এই সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ করল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)। রবিবার প্রথম ধাপে ১০০০ কিট যাচ্ছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সদর দফতরে। জিসিসি বায়োটেকের অধিকর্তা জানিয়েছেন, আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। রবিবার আমরা এক হাজার কিট পাঠাচ্ছি। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে আমাদের কিট যদি দুঃস্থদের কাজে লাগে তাহলে আমাদের গবেষণা সার্থক হবে।

উল্লেখ্য, দেশের অন্যান্য সংস্থা বিদেশ থেকে সরঞ্জাম আমদানি করে কিট তৈরি করেছে। এর ফলে দামও বেশি পড়ে যাচ্ছে, তেমনি কিটের উৎপাদনও নির্ভর করছে আমদানির পরিমাণের উপরে। কিন্তু জিসিসি বায়োটেক সম্পূর্ণ দেশীয় সরঞ্জামে এই কিট তৈরি করায় এই কিটের দাম কম, উৎপাদনও পরনির্ভর নয়।