Sunday, July 21, 2024
কলকাতা

মানুষ খুনের চক্রান্ত করেছিল রাজ্য সরকার: সায়ন্তন বসু

কলকাতা: মানুষ খুনের চক্রান্ত করেছিল রাজ্য সরকার। মেদিনীপুর কলেজ মাঠে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সভা চলাকালীন লোহার কাঠামো ভেঙে পড়ার ঘটনায় ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তুলল রাজ্য বিজেপি। কার গাফিলতিতে ঘটল দুর্ঘটনা? তদন্তের দাবি করেছেন দলের সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু।

মঙ্গলবার কলকাতায় রাজ্য বিজেপি সদর দপ্তরে সাংবাদিক বৈঠক করে প্রশাসনকে বিঁধলেন সায়ন্তন বসু। তাঁর অভিযোগ, সভাস্থলে কোনও অ্যাম্বুলেন্স ছিল না। দুর্ঘটনার পর পুলিশের লাঠিচার্জে পদপিষ্ট হন বহু মানুষ। ফোন করেও পশ্চিম মেদিনীপুরের পুলিশ সুপারকে পায়নি এসপিজি। প্রধানমন্ত্রীর জনসভায় মানুষ খুনের চক্রান্ত করেছিল রাজ্য সরকার।

সায়ন্তন বসুর বক্তব্য, প্রধানমন্ত্রী যখন রাজ্যে আসেন, তখন তাঁর নিরাপত্তা-সহ যাবতীয় দায়িত্ব নেয় প্রশাসনই। রাজ্য সরকারের আরও সতর্ক থাকা উচিত ছিল। বিজেপির রাজ্য সম্পাদক সায়ন্তন বসুর আরও অভিযোগ, মঙ্গলবার মেদিনীপুর শহরেও পর্যাপ্ত সংখ্যায় পুলিশ ছিল না। সেক্ষেত্রে শহরের যেকোনও জায়গাই বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটে পারত।

দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষও পুরো ঘটনার দায় প্রশাসনের ওপরই চাপিয়েছেন। তাঁর অভিযোগ, পুলিশ ও প্রশাসনের নিষ্ক্রিয়তার কারণেই দুর্ঘটনা। প্রধানমন্ত্রীর বক্তৃতা চলাকালীন অনেকেই ওই কাঠামোর ওপরে উঠে পড়েন। তার জেরেই ভেঙে পড়ে কাঠামোটি। পুলিশ উপস্থিত থাকলেও, তাদের ভূমিকা কার্যত নীরব দর্শকের ছিল বলে বিজেপি নেতার দাবি।