Wednesday, July 24, 2024
Latestদেশ

লাইন দিয়ে ভোট দিলেন স্মৃতি ইরানি, বিশেষ ঘটনার সাক্ষী হয়ে থাকলেন

  • মুম্বাই: ২০১৯ লোকসভা ভোটে আমেঠিতে রাহুল গান্ধীকে পরাজিত করেছেন স্মৃতি ইরানি। তবে তাঁর নিজের ভোটকেন্দ্র মুম্বাইয়ে। অন্য সকল মুম্বাইবাসীর মতো কেন্দ্রীয় মন্ত্রীও এদিন ভোট দিলেন মুম্বাইয়ের এক পোলিং বুথে। বিধানসভা নির্বাচনে ভোট দিতে গিয়ে এক বিশেষ ঘটনার সাক্ষী হয়ে থাকলেন স্মৃতি ইরানি। সৌজন্যে বৃদ্ধ খান্না সাহেব।

৯৩ বছর বয়সী খান্না সাহেবের সঙ্গে কথা বলে বিশেষভাবে আপ্লুত হয়ে পড়েন স্মৃতি ইরানি। সামান্য ঝুঁকে পড়েছেন সামনের দিকে। ত্বক কুঁচকে গিয়েছে। কিন্তু, চোখে হাজার ওয়াটের দীপ্তি নিয়ে ভোট দিতে এসেছিলেন ‘খান্না-জি’। এই নামেই তাঁকে সকলের পরিচয় করিয়ে দিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি।


পেশাগত জীবনে ‘খান্না-জি’ ভারতীয় সেনায় নিযুক্ত ছিলেন। ৯৩ বছর বয়সেও তিনি নিজের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পায়ে হেঁটে বুথে এসেছেন। বিষয়টিতে বেজায় খুশি হয়েছেন মন্ত্রী স্মৃতি। সাধারণ মানুষের করের টাকা থেকেই নির্বাচন কমিশন ভোটের ব্যবস্থা করে। গণতন্ত্রের সবথেকে বড় উৎসবে যারা নিজেকে গুটিয়ে রাখেন তাঁদের প্রতি এই খান্নাজির ভোট দিতে আসা একটা বড় বার্তা বলে জানান স্মৃতি ইরানি।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন, ‘খান্না-জি’ নতুন প্রজন্মের কাছে এক অনুপ্রেরণা। স্মৃতি ইরানির মতে, যদি খান্না-জি ৯৩ বছর বয়সে ভোট দিতে আসতে পারেন, তাহলে বাকিরা পারবেন না কেন? বুথের মধ্যে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে দেখে বেজায় খুশি হন বৃদ্ধ খান্নাজি। বয়সে প্রবীণ হয়েও স্মৃতি ইরানিকে প্রণাম করতে যাচ্ছিলেন তিনি। তবে তাঁকে থামিয়ে স্মৃতি ইরানি বলেন, আমার আপনাকে প্রণাম করা উচিৎ।