Wednesday, July 24, 2024
Latestদেশ

দেশের প্রতিটি শহর-নগরে গো-ছাত্রাবাস গড়ার সুপারিশ কামধেনু আয়োগের

নয়াদিল্লি: দেশের প্রতিটি শহর বা নগর অঞ্চলে তৈরি হতে যাচ্ছে গরুদের জন্য হোস্টেল। কামধেনু আয়োগ কেন্দ্রের কাছে প্রতিটি শহরে ১০ থেকে ১৫টি জায়গা বরাদ্দের জন্য সুপারিশ করেছে। শহরে খাঁটি গরুর দুধ পাওয়া অনেকটা দুষ্কর। এছাড়া অনেকেই গরুর মালিক হওয়ার স্বপ্ন দেখেন। শহরবাসী মানুষদের এইসকল সমস্যা সমাধানে গরুর হোস্টেল তৈরির উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে।

নবগঠিত জাতীয় গরু কমিশন (কামধেনু আয়োগ) কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে প্রস্তাব দিয়েছে, দেশের প্রতিটি শহর বা নগর অঞ্চলে গরু হোস্টেলের জন্য ১০ থেকে ১৫টি জায়গা বরাদ্দ দেওয়ার জন্য। কামধেনু আয়োগের চেয়ারম্যান ভল্লবভাই কাতিরিয়া জানিয়েছেন, গরু হোস্টেল নির্মাণের বিষয়ে নির্দেশনা চেয়ে নগর পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়কে চিঠি দিয়েছে কামধেনু আয়োগ। তিনি জানান, গুজরাটের গ্রামাঞ্চলে গরু হোস্টেলগুলি সফলভাবে পরীক্ষা করা হয়েছে। পরিকল্পনাটি দেশব্যাপী সম্প্রসারিত করা হবে।

ভল্লবভাই কাতিরিয়া আরও জানান, এসব হোস্টেলে রাখা গরু থেকে মালিকেরা সব সুবিধা পাবেন। গরুর খাঁটি দুধ পাবেন, এছাড়া গরুর বাছুর হলেও তার মালিকানা পাবেন। সেইসঙ্গে গরুর দুধ, গোবর বিক্রি করে আয়ও করতে পারবেন। গোবর এবং গোবর দিয়ে বায়োগ্যাস উৎপাদন করে জ্বালানি এবং উদ্ভিদ-চাষের জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে।

এছাড়া শহর অঞ্চলে যাদের গুরু কিনে তা লালন-পালন করার স্বপ্ন রয়েছে তাঁরা এসব হোস্টেলে নিজেদের পছন্দমত গরু কিনে রাখতে পারবে। তবে এজন্য তাঁদের ফি দিতে হবে বলে খবর।