Wednesday, July 24, 2024
আন্তর্জাতিক

৯/১১ হামলার ১৯ বছর পরেও ক্ষত দগদগে, এখনও বাকি ১১১১ দেহ শনাক্তকরণ

নিউইয়র্ক: আজ যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়ঙ্কর সন্ত্রাসী হামলার ১৯তম বার্ষিকী। ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে ভয়াবহ ওই হামলায় নিহত হন প্রায় ২৭৫৩ মানুষ। ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের জঙ্গি হামলার শোক এখনও ভুলতে পারেনি যুক্তরাষ্ট্র। আর এত বছরেও হয়ে ওঠেনি সব মৃতদেহের DNA চিহ্নিতকরণের কাজ। এখনও বাকি ১১১১ জনের DNA শনাক্তকরণ। মৃত ২৭৫৩ জনের মধ্যে ১৬৪২ জনের শনাক্তকরণ সম্ভব হয়েছে। এখনও ১১১১ জনের দেহ শনাক্তকরণের কাজ বাকি। নিউইয়র্কের পরীক্ষাগারে প্রতিদিন নিয়ম মেনে হাজার হাজার পরীক্ষা চলছে।

২০০১ সালের সকালে ১৯ সন্ত্রাসী বোস্টনের লগান বিমানবন্দর থেকে ৪টি প্লেন অপহরণ করে। তাদের পরিকল্পনা ছিল ওয়াল স্ট্রিট, দ্য পেন্টাগন ও দ্য হোয়াইট হাউস ধ্বংস করে দেয়ার মাধ্যমে আমেরিকার অর্থনীতিকে পঙ্গু করে দেয়া। প্রথম দুটি বিমান নিজেদের লক্ষ্যবস্তুতে হামলা করে। আমেরিকান এয়ার লাইন্সের ফ্লাইট-১১ সকাল ৮টা ৪৬ মিনিটে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের টাওয়ার ওয়ানে আঘাত করে। ৯টা ৩ মিনিটে টাওয়ার টু’তে আঘাত হানে ইউনাইটেড এয়ার লাইন্সের ফ্লাইট-১৭৫। টাওয়ার ওয়ান শীর্ষ থেকে মাটিতে ধসে পড়ে ১০টা ২৮ মিনিটে। টাওয়ার সেভেন দুমড়ে মুচড়ে পড়ে বিকাল ৫টা ২০ মিনিটে।

তৃতীয় আরেকটি বিমান মার্কিন প্রতিরক্ষা বিভাগের সদর দপ্তর পেন্টাগনে আক্রমণ করে। স্থানীয় সময় সকাল ৯টা ৪৩ মিনিটে ওই হামলা চালানো হয়। এই হামলায় প্রাণ হারান ১২৫ জন। সেই সঙ্গে মারা যায় বিমানের সব যাত্রী ও ক্রুসহ আত্মঘাতী হামলাকারীরা।

নিউজার্সির ন্যুয়ার্ক লিবার্টি বিমানবন্দর থেকে ইউনাইটেড এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট ৯৩ সানফ্রান্সিসকোর উদ্দেশ্যে যাত্রা করে। উড্ডয়নের ৪০ মিনিটের মধ্যেই বিমানটির নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয় চার সন্ত্রাসী। বিমানটিতে ৭ ক্রু ও ৩৩ জন সাধারণ যাত্রী ছিলেন। বিমানটি দেরিতে যাত্রা করায় টুইন টাওয়ারে হামলার বিষয়টি যাত্রীরা আগেই জেনে গিয়েছিলেন। ওই সময়ে অন্তত ১০ জন যাত্রী মোবাইল ফোনে তাদের প্রিয়জনদের সঙ্গে কথা বলছিলেন। ছিনতাইকারীরা বিমানটি নিয়ন্ত্রণে নিলে যাত্রীরা বুঝতে পারেন আরেকটি হামলার চালানো হচ্ছে। ৯টা ৫৭ মিনিটে কয়েকজন সাহসী যাত্রী অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র নিয়ে ককপিটে ছিনতাইকারীদের ওপর হামলা করেন। সন্ত্রাসীদের সঙ্গে ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে স্থানীয় সময় সকাল ১০টা ৩ মিনিটে পেনসিলভানিয়ার একটি মাঠে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়। এতে আরোহী ৩০ জনের সবাই নিহত হন।