Sunday, July 21, 2024
দেশ

বহুকাঙ্খিত ওয়েস্টার্ন পেরিফেরাল এক্সপ্রেসওয়ে-র উদ্বোধন করলেন মোদী

গুরুগ্রাম: অবশেষে দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান হল। সোমবার বহুকাঙ্খিত ওয়েস্টার্ন পেরিফেরাল এক্সপ্রেসওয়ে-র উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। যার ফলে এবার দিল্লিবাসী সামান্য হলেও স্বস্তি পাবে। ফলে দিল্লিতে গাড়ির চাপ ও দূষণ কিছুটা কমবে বলে মনে করা হচ্ছে। দিল্লিতে গত কয়েক মাসে বায়ুর গুনমান একেবারে তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে। শ্বাস নেওয়া প্রায় কঠিন হয়ে গিয়েছে রাজধানীতে।

ওয়েস্টার্ন পেরিফেরাল এক্সপ্রেসওয়ে-কে স্থানীয়ভাবে কুন্দলি-মানেসর-পালওয়াল (কেএমপি) এক্সপ্রেসওয়ে-ও বলা হয়ে থাকে। নতুন তৈরি কেএমপি জাতীয় সড়ক ১, ১০, ৮ এবং ২ কে সংযুক্ত করবে। এই মুহূর্তে পূর্বের এক্সপ্রেসওয়েতে দৈনিক ১৬ হাজার গাড়ি চলাচল করে। এবার তা বেড়ে দ্বিগুণ হতে চলেছে বলে আশা করা হচ্ছে। ওয়েস্টার্ন পেরিফেরাল এক্সপ্রেসওয়েতে হালকা গাড়ির স্পিড লিমিট হতে চলেছে ঘণ্টায় ১২০ কিলোমিটার। আর ভারী গাড়ির ক্ষেত্রে ১০০ কিলোমিটার।

২০০৫ সালে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ পেয়ে এই এক্সপ্রেসওয়ে তৈরি কাজ শুরু হয়। মোট ২৮৪৬ একর জমির জন্য সরকারকে দিতে হয়েছে ২৭৮৮ কোটি টাকা। এটি ১৩৫.৬ কিলোমিটার দীর্ঘ। প্রকল্পটিতে মোট খরচ হয়েছে ৬৪০০ কোটি টাকা। এই এক্সপ্রেসওয়ে-তে ৮টি ছোট ব্রিজ, ৬টি বড় ব্রিজ, ৩৪টি আন্ডারপাস, ৬৪টি পেডেস্ট্রিয়ান ক্রসিং রয়েছে। এছাড়া অনেকগুলি পেট্রোল পাম্প, পুলিশ স্টেশন, পার্কিং, একটি ট্রমা সেন্টার, হেলিপ্যাড এবং রিফ্রেশমেন্ট সেন্টার ইত্যাদি রয়েছে।

এদিন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কংগ্রেসকে খোঁচা দিতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই এক্সপ্রেসওয়ে ১৩ বছর আগে কমনওয়েলথ গেমসের সময় খোলার কথা ছিল। তবে দুর্নীতি করে নির্মাণকাজ আটকে দেওয়া হয়েছিল। মানুষের টাকা খরচ করে দেরি করেছে তৎকালীন ইউপিএ সরকার।