Friday, July 12, 2024
রাজ্য​

প্রধানমন্ত্রী মোদীর সাথে বৈঠকে পাঁচ জোরালো দাবি জানালেন মমতা

নয়াদিল্লি: এখনও পর্যন্ত ভারতে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৭৪৪৭ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১০৩৫ জন এবং প্রাণ হারিয়েছেন ৪০ জন। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের তথ্য অনুসারে, এই ৭৪৪৭ জনের মধ্যে ৬৫৬৫ সক্রিয় করোনা কেস, ৬৪৩ জন সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠেছেন এবং দেশে মোট  ২৩৯ জন মারা গিয়েছেন।

শনিবার সকাল ১১টা থেকে দেশের সকল রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সাথে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকে যোগ দিয়েছেন। এই বৈঠকে অধিকাংশ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা দাবি জানিয়েছেন, লকডাউনের সময়সীমা বাড়ানোর। মুখ্যমন্ত্রীদের দাবি, আগামী ৩০ এপ্রিল অবধি লকডাউন বাড়ানো হোক।

পাশাপাশি একাধিক অভিযোগও তুলেছেন মুখ্যমন্ত্রীরা। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই বৈঠকে আর্থিক প্যাকেজ নিয়ে সরব হয়েছেন। উদ্ধব ঠাকরেও লকডাউনের সময়সীমা বাড়ানোর দাবি জানান। এদিকে, পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং কেন্দ্রের কাছে আর্জি জানিয়েছেন, করোনা পরীক্ষার টেস্ট কিটের দ্রুত জোগানের উপর।

লকডাউন বাড়ানোর পাশাপাশি কয়েকটি দাবিদাওয়া পেশ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রী সাফ জানান, তিনি লকডাউনের পক্ষে তিনি। কিন্তু মানবিক দিকগুলি খেয়াল রাখতে হবে। মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, সমতা রাখতে হবে জীবন ও জীবিকায়। তাঁর দাবি দেশের সাধারণ মানুষের জন্য দ্রুত নয়া আর্থিক প্যাকেজ আনা হোক।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দাবি-

১. এখনই ট্রেন পরিষেবা চালু করা যাবে না।

২. বন্ধ রাখতে হবে বিমান পরিষেবা।

৩. অন্তত ২ মাসের বেতন দিতে হবে অসংগঠিত শ্রমিকদের।

৪. পরিযায়ী শ্রমিকদের বিষয়ে মানবিক বিবেচনা করা হোক।

৫. আন্তর্জাতিক সীমানাগুলি সিল করে রাখা হোক।