Tuesday, July 16, 2024
Latestরাজ্য​

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলিতে সহিংস ছাত্র আন্দোলন বামদেরই ‘উপহার’: দিলীপ ঘোষ

কলকাতা: দিল্লির জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে (JNU) রবিবার সন্ধ্যায় হামলার ঘটনা উত্তাল গোটা দেশ। এবিভিপি ও বাম ছাত্র সংগঠনগুলি পরস্পরের দিকে দোষারোপের আঙুল তুলেছে। এরই মধ্যে এই হামলার জন্যে বামেদেরই দায়ী করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। দিলীপবাবু বলেন, দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলিতে সহিংস ছাত্র আন্দোলন বামদেরই ‘উপহার’।

দিলীপ ঘোষ বলেন, যেভাবে একসময় বাম শাসন সরকার ক্ষমতায় থাকতে রাজ্যগুলিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছাত্র রাজনীতিতে হিংসা ঢুকিয়েছিল। এখন দিল্লিতে সেই সংস্কৃতিই ফিরিয়ে আনছে তাঁরা।

রবিবার সন্ধ্যায় JNU-তে হামলা চালায় ৫০ জন মুখোশধারী। ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ও শিক্ষক মিলিয়ে কমপক্ষে ৩৪ জন আহত হয়। মুখোশধারীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ভাঙচুর চালায় ও পড়ুয়াদের মারধর করে।

দিলীপ ঘোষ বলেন,  ছাত্র রাজনীতি ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে হিংসাত্মক আন্দোলন বাম ছাত্র সংগঠনগুলিরই উপহার। খেয়াল করলে দেখতে পাবেন, কেবলমাত্র পশ্চিমবঙ্গ, কেরল এবং ত্রিপুরা, যেখানে যেখানে কয়েক বছর আগে বামপন্থীরা ক্ষমতায় ছিলেন বা আছেন, সেই সেই রাজ্যের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলিতেই এমন সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। বাম ছাত্র সংগঠনগুলি আবার সেই সংস্কৃতি ফিরিয়ে আনছে বলে অভিযোগ করেন দিলীপ ঘোষ।

JNU-তে হামলার ঘটনায় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তীব্র নিন্দা করেছেন। এই হামলাকে বিজেপির ‘ফ্যাসিবাদী সার্জিক্যাল স্ট্রাইক’ বলে আখ্যা দিয়েছেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, দেশ জুড়ে যা ঘটছে তা খুবই উদ্বেগের। আমিও এক সময় ছাত্র রাজনীতিতে জড়িত ছিলাম, কিন্তু ছাত্র এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এই ধরণের আক্রমণ আমি আগে কখনও দেখিনি।