Sunday, July 21, 2024
দেশ

‘নিছক পুলিশ অফিসারকে বাঁচানোর লক্ষ্য নয় মমতার, বরং স্বার্থ নিজের’

নয়াদিল্লি: নিছক একজন পুলিশ অফিসারকে বাঁচানো নয়, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আসল লক্ষ্য অন্যান্য বিরোধী দলের নেতাদের থেকে নিজের দিকে ফোকাস ঘুরিয়ে নিতেই। পশ্চিমবঙ্গে সিবিআই-পুলিশ সংঘাত ও মমতার ধর্না প্রসঙ্গে বিস্ফোরক টুইট করে নিজের মতামত জানালেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অরুণ জেটলি।

মঙ্গলবার সকালে অরুণ জেটলি মমতার ধরনা মঞ্চকে কটাক্ষ করে টুইট করেন। টুইটে তিনি বলেন, এটা ভাবলে ভুল হবে যে, নিছক একজন পুলিশ অফিসারের বিরুদ্ধে তদন্ত করতে যাওয়ার জন্যই এই ধর্নায় বসেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জেটলির মতে, বিরোধীদের কেন্দ্রে থাকার জন্যই এই পদক্ষেপ নিয়েছেন নেত্রী। অন্যান্য বিরোধী দলের নেতাদের থেকে নিজের দিকে ফোকাস ঘুরিয়ে নিতেই এমন করছেন মমতা।

‘ক্লেপ্টোক্র্যাট’-দের ক্লাব বলে বিরোধীদের আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, মমতা, তেজস্বী, কেজরিওয়ালের মধ্যে একটাই মিল। এরা প্রত্যেকেই ক্ষমতায় আসার জন্য উদগ্রীব। অন্যান্য নেতাদের প্রসঙ্গ টেনে জেটলি বলেন, মমতার বিহারের সঙ্গী (তেজস্বী) অপরাধীদের দলনেতা। অন্ধ্রপ্রদেশের বন্ধু (চন্দ্রবাবু) চালায় ঠিকাদারদের দল। উত্তরপ্রদেশের দুই সঙ্গী (অখিলেশ, মায়াবতী) দুর্নীতির ঐতিহ্য বহন করছে। আর দিল্লির ভাই (কেজরিওয়াল)-এর সরকার তো শেষের পথে।

পাশাপাশি কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর উদ্দেশেও কটাক্ষ করেন তিনি। টুইটে তিনি বলেন, দুর্নীতিগ্রস্তদের সমর্থন করতেও পিছপা নন এআইসিসি সভাপতি। তার জন্য সারদাকে কেলেঙ্কারি মানতে তিনি নারাজ। অথচ মজার ব্যাপার হল কংগ্রেসের প্রথম পরিবারের অনেক সদস্যই বিভিন্ন মামলায় জামিনে মুক্ত। দুর্নীতিগ্রস্তদের এই জোট ভারতের বিপর্যয় ডেকে আনবে।