Monday, July 22, 2024
রাজ্য​

‘খেলা নয় চাকরি চাই’, বিজেপির নয়া স্লোগানে উত্তাল সোশ্যাল মিডিয়া

কলকাতা: একুশের বিধানসভা নির্বাচনে ‘খেলা হবে’ স্লোগানটি ব্যাপক জনপ্রিয় হয়। পশ্চিমবঙ্গের আঙিনা ছাড়িয়ে এখন এই স্লোগানটি জাতীয় স্লোগান হয়ে উঠেছে। একুশের ভোটে তৃণমূল জেতার পর গেরুয়া শিবিরকে খ্যাপানোর জন্য ‘খেলা হবে’ স্লোগানটি ব্যবহার করেছে স্লোগানটি ছড়িয়ে পড়েছে দেশের বিভিন্ন রাজ্যেইতিমধ্যে উত্তরপ্রদেশের বিরোধী দল সমাজবাদী পার্টি ভোজপুরি ভাষায় ‘খেলা হই’ স্লোগান বের করেছে। এছাড়াও কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা পিডিপি প্রধান মেহবুবা মুফতিও বিজেপির বিরুদ্ধে আক্রমণ শানাতে ‘খেলা হবে’ স্লোগান তুলেছেন

উল্লেখ্য, তৃতীয়বারের মতো মুখ্যমন্ত্রী পদে ক্ষমতায় আসার পর বাজেট অধিবেশনের দিনে বিধানসভায় দাঁড়িয়ে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন, এবার রাজ্যে ‘খেলা হবে’ দিবস পালন করা হবে সেই দিবসের দিন নানা রকম খেলার প্রতিযোগিতার ব্যবস্থা করা হবে

তবে ‘খেলা হবে’ দিবস নিয়ে সমালোচনা করতে পিছপা হননি গেরুয়া শিবির ও বিরোধীরা। বিজেপি এবার এই স্লোগানের পাল্টা স্লোগান দিয়ে উত্তাল করে তুলেছে সোশ্যাল মিডিয়া। সম্প্রতি গেরুয়া শিবিরের পক্ষ থেকে টুইটারে ‘khela_noy_chakri_chai” হ্যাশট্যাগ ট্রেন্ডিং করেছে। 

গেরুয়া শিবিরের ‘খেলা নয় চাকরি চাই’ স্লোগান রীতিমতো সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রেন্ড করেছে। টুইটারে দিলীপ ঘোষ লিখেছেন, ক্লার্ক এবং আইসিডিএস মেন্সের রেজাল্ট অবিলম্বে প্রকাশ করুক সরকার। রাজ্যের বিভিন্ন দফতরে শূন্য পদের তালিকা প্রকাশ করে জানানো হোক কেন নিয়োগ প্রক্রিয়া স্তব্ধ। খেলায় মগ্ন সরকারের কাছে রাজ্যের ভবিষ্যত গৌণ। মৌন সরকারের উচিত দুর্নীতি বন্ধ করে নিয়োগ চালু করা। হ্যাশট্যাগ, খেলা নয় চাকরি চাই।

ইংরেজ বাজারের বিধায়ক শ্রীরূপা মিত্র চৌধুরী টুইটে অর্থ বিষয়ক সমীক্ষা সংস্থা সিএমআইইয়ের তথ্য তুলে ধরে লিখেছেন, বেকারত্বের জাতীয় গড় আর রাজ্যের গড়ের বিস্তর ফারাক রয়েছে। কর্মক্ষম জনসংখ্যার ২২.১ শতাংশ বেকার পশ্চিমবঙ্গে। আর সেখানে জাতীয় গড় ৭.৮ শতাংশ। জাতীয় গড়ের তুলনায় যা প্রায় তিন গুণ বেশি।

কিন্তু এই ‘খেলা হবে’ স্লোগানের স্রষ্টা কে? 

‘খেলা হবে’ স্লোগানটি প্রথম বলতে শোনা যায় বাংলাদেশের নারায়ণগঞ্জের ডাকসাইটে রাজনীতিবিদ তথা আওয়ামী লীগ নেতা শামীম ওসমানের মুখে। শামীম ওসমান বলেছিলেন, ‘খেলা হবে’। বলতেন, ‘কারে খেলা শেখান? আমরা তো ছোটবেলার খেলোয়াড়’। তার বক্তৃতার সেই ভিডিও ইউটিউব ও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। তবে পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনের মাধ্যমে এই স্লোগান আরো ব্যাপকভাবে জনপ্রিয়তা পায়।