Wednesday, July 24, 2024
দেশ

আদিত্যনাথের সামনে করজোড়ে প্রার্থনা পুলিশ অফিসারের, ভাইরাল ছবি

গোরখপুর: মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের সামনে মাথা নত করে করজোড়ে প্রার্থনা পুলিশ অফিসারের। সম্প্রতি এমনই একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। পুলিশ অফিসার উর্দি পরে হাঁটু গেরে বসে হাতজোড় করে বসে রয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের সামনে। ছবি যদি এমন হয় তাহলে তো সমালোচনা হবেই।

জানা গিয়েছে, গোরখনাথ এলাকার থানার এক উচ্চপদস্থ আধিকারিক প্রবীন কুমার সিং। বুদ্ধপুর্ণিমার দিন গোরখনাথ মন্দিরে ঘুরতে যান প্রবীণ কুমার। সেই সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। মন্দিরের ভিতরেই সিংহাসনে বসেছিলেন আদিত্যনাথ। মুখ্যমন্ত্রীকে দেখেই মাটিতে হাঁটু গেড়ে বসে পড়েন প্রবীণ কুমার। এরপর মাথা নীচু করে আদিত্যনাথের থেকে আশীর্বাদ নেন তিনি। শুধু তাই নয় ৷ মুখ্যমন্ত্রীর কপালেও তিলকের দাগ কেটে দিয়ে তাঁকে মালা পরান প্রবীণ কুমার।

এরকম একাধিক ছবি সেই পুলিশ আধিকারিক প্রবীণ কুমার সিং তাঁর ফেসবুকে পোস্ট করেন। তিনি গোরক্ষপুরের থানার সার্কেল অফিসার। একাধিক থানা রয়েছে তাঁর দায়িত্বে। কাজেই দায়িত্ব এবং গুরুত্বটাও অনেক বেশি। সরকারি উর্দিতে কেন তিনি এই কাজ করলেন এই নিয়ে শুরু হয়েছে সমালোচনা। নেটিজেনদের মতে গুরু যাকে ইচ্ছে হয় তাঁকে করতে পারেন তিনি। কিন্তু সরকারি উর্দিতে কোনও আচার করা উচিত নয়। তাতে উর্দির অপমান করা হয়। আবার কেউ কেউ বিষয়টিতে কোনও অন্যায় দেখছেন না। আবার অনেকের দাবি, পুলিশ অফিসারের পোশাকে এমন কাণ্ডটি করে ঠিক করেননি প্রবীণ ৷ পোশাক পরিবর্তন করে তিনি আদিত্যনাথের থেকে আশীর্বাদ নিতেই পারতেন। তাতে কোনও সমস্যা ছিল না।

প্রবীণ কুমার জানিয়েছেন, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বলে নয়। গোরখনাথ মন্দিরের প্রধান আদিত্যনাথ। সেই কারণেই আদিত্যনাথের থেকে আশীর্বাদ নেন তিনি।