Friday, July 19, 2024
দেশ

মেয়েদের স্কুলেপুরুষ শিক্ষক কেন? জিডি বিড়লা কাণ্ডে প্রশ্ন শিক্ষামন্ত্রীর

কলকাতা: জিডি বিড়লায় ৪ বছরের শিশু নিগ্রহকাণ্ডে স্কুলের আরও সংবেদনশীল হওয়া উচিত ছিল বলেই মনে করেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। গাফিলতি থাকলে প্রশাসনিকভাবে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। প্রয়োজনে অভিভাবকদের সঙ্গেও দেখা করার আশ্বাস দেন শিক্ষামন্ত্রী।

রবিবার জিডি বিড়লা স্কুলের ঘটনা প্রসঙ্গে সংবাদমাধ্যমের সামনে পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘মেয়েদের স্কুলে পুরুষ শিক্ষক কেন? পুরুষ শিক্ষক না রাখাই বাঞ্ছনীয়। ছাত্র ও ছাত্রীরা একই টয়লেট ব্যবহার করে? এটা কখনই মেনে নেওয়া যায় না ৷ যে স্কুলবাসে মেয়েরা যায় ৷ সেই বাসে মেয়ে অ্যাটেন্ডেন্ট থাকবে না ৷ এটা কখনই কাম্য নয় ৷’

খোদ শিক্ষামন্ত্রীর মুখে স্কুলে পুরুষ শিক্ষক না রাখার পরামর্শের কথা শুনে অবাক সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রের বিশিষ্টজনেরা। কেবল একটা ঘটনা থেকেই মেয়েদের স্কুলে পুরুষ শিক্ষক না রাখার সিদ্ধান্ত অনুুচিত এবং একটি ঘটনা দিয়ে সকলকে কাঠগড়ায় তোলা যায় না বলে বিশিষ্টজনদের মত।

নিজের অতীত অভিজ্ঞতা স্মরণ করে এদিন শিক্ষামন্ত্রী বলেন , ‘আমার মেয়েও জিডি বিড়লা স্কুলে পড়েছে। কিন্ত্ত তখন স্কুলে কোনও পুরুষ শিক্ষক ছিলেন না।’

শিক্ষামন্ত্রীর এই বক্তব্য প্রসঙ্গে সাহিত্যিক শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায় বলেন , ‘পুরুষ থাকলেই যে যৌন নির্যাতনের ঘটনা ঘটবে , এমনটা নয়। এ ধরনের ঘটনা ঠেকাতে স্কুলে আরও নজরদারি প্রয়োজন।’