Sunday, July 21, 2024
আন্তর্জাতিক

বিশ্বের ১০০ অনুপ্রেরণাদায়ী ও প্রভাবশালী নারীর তালিকায় ‘হৃদয়ের মা’

ঢাকা: বিবিসির করা বিশ্বের ১০০ অনুপ্রেরণাদায়ী ও প্রভাবশালী নারীর তালিকায় স্থান পেয়েছেন সীমা সরকার নামের এক বাংলাদেশি মা। সোমবার প্রকাশিত তালিকায় ৮১তম অবস্থানে রয়েছেন সীমা রানি সরকার, যিনি তাঁর ১৮ বছর বয়সী প্রতিবন্ধী ছেলেকে কোলে নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা কেন্দ্রে যান। তাঁর ছেলে শারীরিক প্রতিবন্ধী হৃদয় সরকার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘খ’ ইউনিটে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন।

মায়ের কোলে উঠে ভর্তি পরীক্ষা দিতে আসা হৃদয় সরকারের পরীক্ষা দিতে আসার ছবিটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দ্রুতই ভাইরাল হয়। মায়ের এমন ভালোবাসায় মুগ্ধ হয় দেশের মানুষ। বিশ্বের ৬০টি দেশের ১৫ থেকে ৯৪ বছর বয়সী বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রেরণাদায়ী ও প্রভাবশালী নারীদের নিয়ে এ তালিকা তৈরি করা হয়েছে। বিবিসির তালিকায় ৮১তম স্থানে রয়েছেন ৪৪ বছর বয়সী সীমা।

জানা গেছে, ছোটবেলা থেকেই হাঁটতে পারেন না হৃদয়। প্রতিবন্ধী ছেলেকে পড়াশোনা করানোয় নিগ্রহের শিকারও হয়েছেন সীমা সরকার। স্বল্প আয়ের পরিবারে প্রতিবন্ধী শিশুকে পড়াতে গিয়ে আর্থিক অনটনেও পড়েছেন তিনি। বাংলাদেশে প্রায় কোন শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানেই শারীরিক প্রতিবন্ধীদের চলাচলের জন্য ব্যবস্থা নেই। ছেলেকে কোলে নিয়ে তিন-চার তলা সিড়িও বেয়েছেন সীমা।

সব প্রতিবন্ধকতা মাড়িয়ে ছেলেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি করাতে দিন-রাত শ্রম দিয়েছেন সীমা। শ্রমের যথাযোগ্য মূল্যও তিনি পেয়েছেন। ছেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘খ’ ইউনিটে কলা অনুষদে ভর্তি হওয়ার সুযোগ পেয়েছে। বিবিসি সীমা রানি সরকারকে ‘ফুল-টাইম মাদার’ অ্যাখ্যা দিয়েছে।