Wednesday, July 24, 2024
দেশ

শবরীমালা মন্দিরে ঢোকার চেষ্টা, সমাজকর্মী রেহানা ফাতিমাকে ইসলাম থেকে বিতাড়ন

তিরুবনন্তপুরম: বরাবরই প্রতিবাদী রেহানা ফাতিমা। যদিও প্রতিবাদের নেমে একাধিকবার বিতর্কে জড়িয়েছেন তিনি। এবার শবরীমালা মন্দিরে মহিলাদের প্রবেশাধিকার নিয়ে সরব হয়েছিলেন তিনি। মহিলাদের অধিকারের দাবিতে শবরীমালা মন্দিরে ঢোকার চেষ্টা করেছিলেন রেহানা ফাতিমা। কিন্তু মুসলিম হয়ে শবরীমালা মন্দিরে ঢোকার চেষ্টা করে হিন্দু ভক্তদের ভাবাবেগে আঘাত করেছেন অভিযোগ তুলে রেহানার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিল কেরলের মুসলিম জামাথ কাউন্সিল। রেহানাকে মুসলিম সম্প্রদায় থেকে বিতাড়ন করা হল বলে জানিয়েছে কাউন্সিল।

কেরলের মুসলিম জামাথ কাউন্সিলের সভাপতি এ পুনকুঞ্জু জানিয়েছেন, মুসলিম সম্প্রদায় থেকে রেহানা ফাতিমাকে বিতাড়ন করা হল। রেহানা ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের মাহালুর সদস্যপদ খারিজ করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে এর্নাকুলাম সেন্ট্রাল মুসলিম জামাথ।  স্থানীয় সংগঠনের সদস্য তালিকা থেকেও যাতে তাঁদের নাম তুলে নেওয়া, হয় সেকথাও জানিয়েছেন তিনি।

পুঙ্কুজুর দাবি, শবরীমালা মন্দিরে ঢোকার চেষ্টা করে রেহানা লাখ লাখ হিন্দু ভক্তের ভাববেগে আঘাত করেছেন। এর আগে ২০১৪ সালে ‘‌কিস অব লাভ’‌ নামে আন্দোলনের সময়ে বিএসএনএলের কর্মী ও দুই সন্তানের মা রেহানা ফাতিমা নিজের স্তন দুটি তরমুজে ঢেকেছিলেন। কোঝিকোড়ে এক শিক্ষক মহিলাদের স্তনকে তরমুজের সঙ্গে তুলনা করায় প্রতিবাদ করেছিলেন ফতিমা। তখনও রেহানার বিরুদ্ধে সরব হয়েছিল একাধিক মুসলিম সংগঠন।

প্রসঙ্গত, শবরীমালা মন্দিরে সববয়সী মহিলাদের প্রবেশাধিকারের নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। কিন্তু তারপরেও সেখানে চলছে বিক্ষোভ প্রদর্শন। মহিলাদের ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। জোর করে মন্দিরে ঢোকার চেষ্টা করেন সমাজকর্মী রেহানা ফাতিমা। এরপর রেহানার বাড়িতে হামলা হয় বলে অভিযোগ।